নভেম্বর ২৬, ২০২০

যেকোনো সময় মুফতি হান্নানের ফাঁসি !

১ min read

বাংলাদেশে নিযুক্ত সাবেক বৃটিশ হাইকমিশনার আনোয়ার চৌধুরীর ওপর গ্রেনেড হামলায় তিনজনের মৃত্যুর ঘটনায় নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন হরকাতুল জিহাদের (হুজি) শীর্ষ নেতা মুফতি হান্নানসহ তিনজনের মৃত্যুদণ্ডের রায় বহাল রেখেছে আপিল বিভাগ। তাদের রিভিউ আবেদন খারিজ করে দেয়া হয়েছে। প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বে গঠিত আপিল বিভাগ গতকাল এ আদেশ দেন। সর্বোচ্চ আদালতের এ  আদেশের ফলে এ মামলার আইনি লড়াই শেষ হলো। এখন প্রাণদণ্ড থেকে বাঁচতে শেষ সুযোগ হিসেবে নিজেদের দোষ স্বীকার করে প্রেসিডেন্টের কাছে প্রাণ ভিক্ষার আবেদন করতে পারবেন মুফতি হান্নানসহ অন্য দুই আসামি। যদি দণ্ডপ্রাপ্তরা তা না করেন তাহলে জেলকোড অনুযায়ী যেকোনো সময় ফাঁসি কার্যকর করা যাবে বলে গতকাল সাংবাদিকদের জানান অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। মৃত্যুদণ্ড থেকে খালাসের আরজি জানিয়ে গত ২৩শে ফেব্রুয়ারি ১০০ পৃষ্ঠার এ রিভিউ আবেদন করেন। আদালতে দণ্ডপ্রাপ্তদের পক্ষে রিভিউ শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী নিখিল কুমার সাহা।
২০০৪ সালের ২১শে মে সিলেটে হজরত শাহজালাল (রহ.)-এর মাজারে তৎকালীন বৃটিশ হাইকমিশনার আনোয়ার চৌধুরীর ওপর গ্রেনেড হামলা করা হয়। এতে দুই পুলিশসহ তিনজন নিহত হন। আনোয়ার চৌধুরীসহ  বেশ কয়েকজন আহত হন। এ ঘটনায় দায়ের করা মামলায় ২০০৮ সালের ২৩শে ডিসেম্বর সিলেটের দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল মুফতি হান্নানসহ জঙ্গি শরিফ শাহেদুল ওরফে বিপুল ও দেলোয়ার হোসেন ওরফে রিপনকে মৃত্যুদণ্ড এবং মহিবুল্লাহ ওরফে মফিজুর রহমান ও আবু জান্দালকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দেন। ডেথ রেফারেন্স (মৃত্যুদণ্ড অনুমোদন) ও আপিল শুনানি শেষে গত বছরের ১১ই ফেব্রুয়ারি হাইকোর্র্ট এক রায়ে মুফতি হান্নান, শরীফ শাহেদুল ও দেলোয়ারকে নিম্ন আদালতের দেয়া (মৃত্যুদণ্ড) রায় বহাল রাখেন। আর আপিল না করায় অন্য দুই আসামি মহিবুল্লাহ ও আবু জান্দালের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের রায় বহাল থাকে। হাইকোর্টের দেয়া রায়ের বিরুদ্ধে মুফতি হান্নানসহ তিন জঙ্গির আপিল শুনানি শেষে গত বছরের ৭ই ডিসেম্বর খারিজ করে মৃত্যুদণ্ডাদেশ বহাল রাখেন আপিল বিভাগ। গত ১৭ই জানুয়ারি আপিল বিভাগের ৬৫ পৃষ্ঠার এ পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশিত হয়। পরে মৃত্যু পরোয়ানা জারি হলে গাজীপুরের কাশিমপুর হাই সিকিউরিটি কেন্দ্রীয় কারাগারে মুফতি হান্নানকে তা পড়ে শোনানো হয়। পরে আপিল বিভাগের এ রায়ের বিরুদ্ধে রিভিউ আবেদনের সিদ্ধান্ত জানান তিনি। রমনা বটমূলে বর্ষবরণ অনুষ্ঠানে বোমা হামলার মামলায়ও জঙ্গি নেতা মুফতি হান্নানের বিরুদ্ধে মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছিলেন নিম্ন আদালত। ওই হত্যা মামলায় হাইকোর্টে মুফতি হান্নানসহ আসামিদের ডেথ রেফারেন্স (মৃত্যুদণ্ড অনুমোদন) ও আসামিদের করা আপিল শুনানি চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.