সোম. সেপ্টে ২১, ২০২০

জঙ্গি আশ্রয় নিয়ে ভারতকে সতর্ক করল বাংলাদেশ

১ min read

ঢাকা: জঙ্গি আশ্রয় নিয়ে ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে সতর্ক করল বাংলাদেশ। বাংলাদেশের সতর্কবার্তায় ভারতের জাতীয় নিরাপত্তা নিয়ে তৈরি হয়েছে আশঙ্কা। ভারতের টাইমস অব ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে এমন তথ্য জানানো হয়েছে।

বাংলাদেশ সরকারের প্রতিবেদনের বরাতে খবরে বলা হয়, ২০১৫ সালের চেয়ে ২০১৬ সালে ভারতে জঙ্গি আশ্রয় তিন গুণ বেড়েছে। পশ্চিমবঙ্গ, অাসাম, ত্রিপুরা সীমান্ত দিয়ে ঢুকছে হরকত-উল-জিহাদি-আল-ইসলামি (হুজি) ও জামাত-উল-মুজাহিদিন বাংলাদেশ (জেএমবি) জঙ্গিরা।

ভারতের গোয়েন্দা সংস্থা এনআইএ-র কাছে থাকা তথ্যে জানা যায়, ২০১৪ সালে বর্ধমানের খাগড়াগড় বিস্ফোরণে জেএমবির সরাসরি যোগ রয়েছে।

 প্রতিবেদনে আরো বলা হয়, পশ্চিমবঙ্গ, অাসাম ও ত্রিপুরা— এই তিন রাজ্যে প্রায় ২ হাজার ১০ জন হুজি ও জেএমবি জঙ্গি ঘাঁটি গেড়েছে। এর মধ্যে পশ্চিমবঙ্গ সীমান্ত দিয়ে ভারতে আশ্রয় নিয়েছে ৭২০ জঙ্গি ও বাকি ১২৯০ জন জঙ্গি অাসাম ও ত্রিপুরা হয়ে ভারতে আশ্রয় নিয়েছে।

এ বিষয়ে পশ্চিমবঙ্গ স্বরাষ্ট্র দপ্তরের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, বাংলাদেশের দেয়া রিপোর্ট নিয়ে তথ্য জোগাড় করা হচ্ছে।

অাসাম পুলিশের অ্যাডিশনাল ডিরেক্টর জেনারেল অব পুলিশ পল্লব ভট্টাচার্য জানান, ‘গত ৬ মাসে আমরা ৫৪ জন জেএমবি জঙ্গিকে গ্রেপ্তার করার জেরেই সম্প্রতি জঙ্গি কার্যকলাপ বেড়েছে। শীর্ষ পুলিশ কর্মকর্তা ও বিধায়কদের নিয়ে একটি উচ্চপর্যায়ের কমিটি গঠন করা হয়েছে- বেআইনি অনুপ্রবেশের বিষয়ে নজর দারি চালাতে। তারা প্রতিদিন সীমান্ত এলাকাগুলো ঘুরে দেখছেন।’

আরো চাঞ্চল্যকর তথ্য হল, অাসাম ও পশ্চিমবঙ্গের কয়েকজনকে ব্যবহার করে নকল পাসপোর্ট নিয়ে গত ১২ জানুয়ারি মাসে ভারতে আশ্রয় নিয়েছে জঙ্গি সংগঠন জেএমবির-র সেক্রেটারি ইফতাদুর রহমান। ওই জঙ্গি নেতা দিল্লি গিয়েছেন বলেও গোয়েন্দাদের কাছে তথ্য রয়েছে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.