জানুয়ারি ১৫, ২০২১

বাবরি মসজিদ নিয়ে হিন্দু-মুসলিম সমঝোতা চায় ভারতের সুপ্রিম কোর্ট

১ min read

দিল্লি: ভারতের উত্তর প্রদেশের অযোধ্যায় বাবরি মসজিদ এবং রাম মন্দির বিতর্কে দুই পক্ষকে আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে সমস্যার সমাধান করার পরামর্শ দিয়েছে দেশটির সুপ্রিম কোর্ট।

শীর্ষ আদালত মনে করে, ধর্ম আর বিশ্বাসের সঙ্গে এই সমস্যা জড়িত। তাই এরকম একটি সংবেদনশীল বিষয়ের সমাধান একমাত্র আলাপ আলোচনার মাধ্যমেই হতে পারে।

মঙ্গলবার বাবরি মসজিদ-রাম মন্দির নিয়ে চলা একটি মামলার শুনানির সময় ভারতের প্রধান বিচারপতি জে এস খেহর বলেন, ‘দুই পক্ষ নিজেদের মধ্যে আলোচনা করুন।’

৩১ মার্চের মধ্যে দুই পক্ষকে আলোচনায় বসতে হবে, এটাও জানিয়েছে আদালত।

ভারতীয় জনতা পার্টির নেতা সুবহ্ম্যনিয়ম স্বামী সুপ্রিম কোর্টে একটি আবেদন জানিয়েছিলেন যাতে অযোধ্যা মামলার দ্রুত শুনানি হয়।

স্বামী সম্প্রতি বিবিসি-র একটি ফেসবুক লাইভ অনুষ্ঠানে মন্তব্য করেছিলেন যে দুবছরের মধ্যে রাম মন্দির তৈরি হবে।

সুব্রহ্ম্যনিয়ম স্বামী বলেছেন, ‘অন্য কোনো জায়গায় রাম মন্দির তৈরি সম্ভব না আমাদের পক্ষে, কারণ এটা ধর্ম বিশ্বাসের ব্যাপার।’

১৯৯২ সালে অযোধ্যার বাবরী মসজিদ ভেঙ্গে ফেলেছিল উগ্র হিন্দুত্ববাদীরা।

২০১০ সালে এলাহাবাদ হাইকোর্ট তাদের রায়ে বলেছিল, যে জায়গায় রামচন্দ্রের মূর্তি স্থাপিত হয়েছে, সেখানে মূর্তি-ই থাকবে। গোটা জমিটার তিনভাগ হবে। একটা অংশ সুন্নি ওয়াকফ বোর্ডকে দেয়ার নির্দেশ দিয়েছিল আদালত।

সেই নির্দেশের ওপরেই স্থগিতাদেশ দিয়ে রেখেছে সুপ্রিম কোর্ট।

আলোচনার মাধ্যমে সমস্যা সমাধানের ব্যাপারে আদালত মঙ্গলবার কোনো নির্দেশ দেয় নি, তবে এটা তাদের একটা উপদেশ।

বিজেপি আদালতের এই উপদেশকে স্বাগত জানালেও বাবরি মসজিদ অ্যাকশন কমিটি বলছে, আদালতের বাইরে মীমাংসার চেষ্টা আগেও হয়েছে। তবে তা ফলপ্রসূ হয়নি। তাই এর মীমাংসা আদালতকেই করে দিতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.