শনি. জুলা ১১, ২০২০

ক্রিকেট বিশ্বকাপ জয়ে সিলেটের সাকিবের গ্রামের বাড়িতে মিষ্টি বিতরণ

১ min read

নতুন আলো অনলাইন ডেস্ক রিপোর্ট:: যুব বিশ্বকাপ ফাইনালে বিজয় ছিনিয়ে এনছে বাংলার যুবরা। আর সেই বিশ্বকাপ ফাইনালে খেলেছেন সিলেটের তরুণ ক্রিকেটার সাকিব।

ফাইনাল ম্যাচে ২ উইকেট নিয়ে দলের জয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রাখেন সাকিব। তার আগ্রাসী বোলিংয়ে ম্যাচের প্রথমেই ভারতকে চেপে ধরে বাংলাদেশ। প্রথম ৩ ওভারে একটি ওয়াইড ছাড়া কোনো রান দেননি এই যুবা। ফলে ৩ উইকেটে ভারতকে হারিয়ে প্রথমবারের মতো বিশ্ব সেরার মুকুট পরল সাকিবের দল।

বিশ্বকাপ জয়ে যুব বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন দলের সদস্য তানজিম হাসান সাকিবের গ্রামের বাড়ি সিলেটের বালাগঞ্জ উপজেলায় আনন্দের বন্যা বইছে।

সোমবার দিনব্যাপি উপজেলার বিভিন্ন স্থানে আনন্দ উল্লাস করে মিষ্টি বিতরণ করা হয়েছে। উল্লসিত জনতা সাকিবের বাড়িতে গিয়ে তার মা-বাবাকে মিষ্টিমুখ করান।

এসময় সমর্থকেরা সাকিব-সাকিব বলে জয়ধ্বনী দিয়ে তারা বলেন সাকিবের কৃতিত্বের জন্য বালাগঞ্জসহ আজ সারা দেশের মানুষ বিজয়ানন্দে ভাসছে। বিশ্বকাপ জিতে নিজ বাড়িতে ফেরার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছিলেন তানজিম হাসান সাকিব। তার সে স্বপ্ন পূরণ হওয়ায় সাকিবের মা-বাবা মহান আল্লাহর কাছে শুকরিয়া আদায় করে সাকিবের জন্য সবার কাছে দোয়া কামনা করেছেন। সাকিবের বাবা গৌছ আলী স্বপ্ন দেখেনে- বিশ্ব ক্রিকেটে সাবিক যেন বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করতে পারে। আর সাকিব যেন অনেক দূর এগিয়ে যাক এমনটাই প্রত্যাশা করেছেন তার মা সেলিনা পারভীন।

প্রতিভাবান এই ক্রিকেটার ফাইনাল ম্যাচে ২ উইকেট নিয়ে দলের জয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রাখেন। সিলেটের বালাগঞ্জ উপজেলার সদর ইউনিয়নের তিলকচাঁনপুর গ্রামের গৌছ আলী ও সেলিনা পারভীন দম্পতির ঘরে ২০০২ সালের ২০ অক্টোবর সাকিবের জন্ম। ৩ বোন ১ ভাইয়ের মধ্যে সাকিব ৩য়।

পরিবারের একমাত্র ছেলে হিসেবে সাকিবের প্রতি ভালোবাসার অন্ত নেই। সাকিবের বন্ধুরা বলেন, ক্রিকেটের প্রতি তার এতোটাই আশক্তি ছিল  ৬ষ্ঠ-৭ম শ্রেণিতে পড়ার সময় কোথাও কোনো ম্যাচের খবর পেলে সে ক্লাস ফাঁকি দিয়ে খেলায় চলে যেতো। সাকিবের চাচাতো ভাই বালাগঞ্জ সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আব্দুল মুনিম বলেন, তাকে নিয়ে আমাদের অনেক স্বপ্ন রয়েছে আশা করি তার মাধ্যমে সে স্বপ্ন বাস্তবায়িত হবে।

সাকিবের বাবা গৌছ আলী বলেন, আমি প্রথমে চাইনি সাকিব ক্রিকেটের প্রতি আসক্ত হোক। আমি চেয়েছিলাম আমার ছেলে লেখা পড়ায় মনোযোগ দিক। কিন্তু আজ আমার ছেলে দেশের বাইরে গিয়ে খেলেছে এবং বাংলাদেশের সুনাম বৃদ্ধি করছে। এলাকাবাসী সবাই আমার সাকিবের জন্য দোয়া করছেন। আমিও এখন চাই সাকিব বড় খেলোয়াড় হোক।

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.