সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২০

জগন্নাথপুর পৌর নির্বাচনের তফসিল ঘোষনা, সম্ভাব্য প্রার্থী-সমর্থকদের তৎপরতা শুরু

এম রেজা টুনু সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি::  জগন্নাথপুর পৌরসভার উপনির্বাচনের তফসিল ঘোষনার সঙ্গে সঙ্গে সম্ভাব্য প্রার্থী সমর্থকদের মধ্যে তৎপরতা শুরু হয়েছে।
সোমবার নির্বাচন কমিশন উপনির্বাচনের ঘোষনা করলে এই তৎপরতা দেখা দেয়।

নির্বাচনকে ঘিরে অনেক প্রার্থী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে প্রার্থিতা ঘোষনা দিয়ে শুভেচ্ছার পাশাপাশি দোয়া আর সমর্থন চাইছেন। কেউ কেউ নির্বাচনে অংশ নিতে যুক্তরাজ্য থেকে দেশে ফেরার প্রস্তুতি নিয়েছেন। উপনির্বাচনে নৌকা প্রত্যাশী আওয়ামী লীগের একাধিক প্রার্থীর নাম শুনা গেলেও বিএনপির প্রার্থীদের নাম এখনও তেমন গুঞ্জন শুনা যাচ্ছে না।

জানা যায়, জগন্নাথপুর পৌরসভার মেয়র আব্দুল মনাফের মৃত্যুর পর সম্ভাব্য প্রার্থীরদের মধ্যে তৎপরতা দেখা দেয়। কেউ কেউ প্রকাশ্য প্রচারনা শুরু করেন এবং নির্বাচনের প্রস্তুতি নেন। কিন্তু হঠাৎ করে জনগণের মাঝে খবর ছড়ায় পৌরসভার মেয়াদ শেষের দিকে এজন্য নির্বাচন হচ্ছে না। এধরণের অদৃশ্য খবরে নিরবতা বিরাজ করলেও তফশিল ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে ব্যাপক তৎপরতা দেখা দিয়েছে।
মেয়র পদে যাদের নাম শুনা যাচ্ছে তাঁরা হলেন,জগন্নাথপুর পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা মিজানুর রশিদ ভূঁইয়া, সাবেক পৌর কাউন্সিলর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন সম্পাদক লুৎফুর রহমান,প্রয়াত মেয়র আব্দুল মনাফের বড় ছেলে আবুল হোসেন সেলিম, যুক্তরাজ্য প্রবাসি আওয়ামী লীগ নেতা আকমল খান,যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসি আব্দুস শহীদ ইব্রাহিম,উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক হাজী আব্দুল জব্বার, পৌর কাউন্সিলর আবাব মিয়া, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি যুক্তরাজ্য প্রবাসি সামছুল ইসলাম রাজন, জেলা পরিষদের সদস্য আওয়ামী লীগ নেতা মাহতাবুল হাসান সমুজ, বিএনপি নেতা আবিবুল বারি আয়হান, যুক্তরাজ্য প্রবাসি বিগত নির্বাচনে ধানের শীর্ষে র মনোনীত প্রার্থী বিএনপি নেতা রাজু আহমদ, মির্জা জুয়েল আমিন, যুক্তরাজ্য বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সুজাতুর রেজা সহ একাধিক প্রার্থীর নাম শুনা যাচ্ছে।

উপজেলা নির্বাচন অফিসে ও ভোটারদের সঙ্গে আলাপ করে জানা যায়, ১৯৯৯ সালে তৎকালিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাতীয় প্রয়াত নেতা আব্দুস সামাদ আজাদের প্রচেষ্ঠায় উপজেলা সদরের ৪ নং ইউনিয়ন পরিষদকে জগন্নাথপুর পৌরসভায় রূপান্তরিত করা হয়। ওই সময় পৌর প্রশাসকের দায়িত্ব পালন করেন মুকিত মিয়া। ২০০১ সালে জগন্নাথপুর পৌরসভার নির্বাচনে প্রথম চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি মরহুম হারুনুর রশীদ হিরন মিয়া। সর্বশেষ ২০১৫ সালের ৩০ ডিসেম্বর জগন্নাথপুর পৌর নির্বাচণে মেয়র পদে আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল মনাফ বিজয়ী হয়ে ২০১৬ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি আনুষ্ঠানিকভাবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। গত ১১ জানুয়ায়ী পৌর মেয়র আব্দুল মনাফ মৃত্যুবরণ করলে তাঁর এই পদটি নির্বাচণ কমিশন শুণ্য ঘোষনা করে।

জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মুজিবুর রহমান জানান, জগন্নাথপুর পৌরসভার উপ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ আগামী ২৯ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনী কার্যক্রম
আমরা শুরু করেছি। এখন থেকে মনোনয়ন ফরম পাওয়া যাবে।

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.