সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২০

৭ই মার্চের ঐতিহাসিক ভাষনের কর্মসূচী উদযাপন উপলক্ষে সুনামগঞ্জে চিত্রাংঙ্কন প্রতিযোগিতা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

এম রেজা টুনু সুনামগন্জ জেলা প্রতিনিধি;:
জাতির পিতা বঙ্গঁবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ই মার্চের ঐতিহাসিক ভাষনের কর্মসূচী উদযাপন উপলক্ষে সুনামগঞ্জে চিত্রাংঙ্কন প্রতিযোগিতা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
শনিবার বিকেল সাড়ে ৪টায় সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসন ও জেলা শিশু একাডেমির যৌথ আয়োজনে শহরের শহীদ আবুল হোসেন মিলনায়তনে এ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। এতে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা অংশ নেন। সুনামগঞ্জ জেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের উপ পরিচালক মোঃ আনিসুর রহমানের সভাপতিত্বে ও জেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা বাদল চন্দ্র বর্মণের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন,জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ।
সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে রাখেন,মুক্তিযোদ্ধা এড আলী আমজদ,সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ আরিফ আদনান,তথ্য অফিসার মোঃ আনোয়ার হোসেন,জেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি এড. শফিকুল আলম,পৌর কলেজের সহকারী অধ্যাপক মোঃ আবু নাসের প্রমুখ।

প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ বলেছেন,জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে আজো আমরা স্বাধীন একটি ভুখন্ড পেতাম কিনা সন্দেহ ছিল। বঙ্গবন্ধুর ভাষন জাতিসংঘ স্বীকৃতি দিয়েছে এবং বিশ্বে এমন ভাষন কোন নেতা দিতে পারেন জানা নেই। কাজেই সবকিছুর উধের্ব থেকে যারা বঙ্গবন্ধুকে জাতির পিতা হিসেবে মেনে নিবেন তারা বাংলাদেশের স্বাধীনতার বিশ্বাস করবেন। বঙ্গবন্ধুকে বাদ দিয়ে এই দেশে স্বাধীনতার ইতিহাস কিংবা স্বাধীন সার্বভৌমত্ব বাংলাদেশের কথা চিন্তাই করা যায়না। আজ তার সুযোগ্য উত্তরসূরী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অক্লান্ত পরিশ্রমের ফলে দেশে দারিদ্রতার হার কমে এসেছে। সাধারন মানুষজনের ক্রয়ক্ষমতা বৃদ্ধি পেয়েছে। দেশে বর্তমানে কোন র্দূভিক্ষ নেই মানুষজনের মাথাপিছু আয় রেড়েছে। তাই দেশে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের প্রতিটি মানুষ সে তার স্ব স্ব অবস্থানে থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিশন বাস্তবায়নে একসাথে কাজ করলে খুব শীঘ্রই বিশ্বে বাংলাদেশ একটি উন্নত ও সমৃদ্ধ দেশে পরিণত হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। পরে চিত্রাংঙ্কন প্রতিযোগিতায় ১৮জন বিজয়ী শিশুদের মধ্যে পুরস্কার তুলে দেন অতিথিরা।

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.