সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২০

ঝাড়ু হাতে নিজেই দপ্তর পরিস্কার করলেন মন্ত্রী, অস্বস্তিতে কর্মকর্তারা

১ min read

দিল্লি: দপ্তরের অপরিচ্ছন্নতা দেখে বৃহস্পতিবার বেজায় রেগে গেলেন মন্ত্রী উপেন্দ্র তিওয়ারি। ঝাড়ু হাতে নিয়ে নিজেই নেমে পড়লেন পরিস্কার অভিযানে।

 

মন্ত্রীকে ঝাড়ু হাতে করিডর পরিষ্কার করতে দেখে অস্বস্তিতে পড়লেন দপ্তরের কর্মীরা। মুহূর্তে ছড়িয়ে পড়ল এই ঘটনার খবর। মন্ত্রীর এই কাণ্ড দেখে সরকারি দপ্তর পরিচ্ছন্ন রাখতে কোমর বেঁধে ময়দানে নেমে পড়লেন কর্মকর্তারাও।

 

উত্তরপ্রদেশ বিধানসভায় যে ঘরটি বরাদ্দ হয়েছে মন্ত্রী উপেন্দ্র তিওয়ারির জন্য, সেই ঘর এবং করিডরের অপরিচ্ছন্নতা দেখে এ দিন অত্যন্ত অসন্তুষ্ট হন মন্ত্রী।

 ঝাড়ু হাতে নিজেই করিডর পরিস্কার শুরু করেন তিনি। বিপদবুঝে এক পরিচ্ছন্নকর্মী তড়িঘড়ি খালি হাতে মেঝে থেকে ময়লা কুড়িয়ে নিতে শুরু করেন। তবে দপ্তরের অন্য কর্মীরা তখন স্তম্ভিত। মন্ত্রীকে ঘিরে কিংকর্তব্যবিমূঢ় হয়ে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায় তাদের।

 

মন্ত্রী নিজে ঝাড়-পোঁছ করেছেন দফতরে, এই খবর আগুনের মতো ছড়িয়েছে উত্তরপ্রদেশে এবং বাইরেও। তার পর থেকে আরো তটস্থ সরকারি দপ্তরের কর্মকর্তারা। উপেন্দ্র তিওয়ারি নিজেই সাফাই অভিযানে নামার পর, তার দপ্তর তো বটেই অন্যান্য দপ্তরের কর্মকর্তারাও পরিচ্ছন্নতা সুনিশ্চিত করতে কাজ শুরু করে দিয়েছেন।

 

রবিবার শপথ নিয়েছে আদিত্যনাথের মন্ত্রিসভা। সোমবারই তিনি মন্ত্রীদের আরো একটি বিষয়ে শপথ গ্রহণ করিয়েছেন। প্রত্যেক মন্ত্রী বছরে অন্তত ১০০ ঘণ্টা সময় ব্যয় করবেন পরিচ্ছন্নতা অভিযানের জন্য, মন্ত্রীরা শপথ নিয়েছেন এই মর্মে। যোগীর নির্দেশে সরকারি দপ্তরে পান, পান মশলা, গুটখা খাওয়াও নিষিদ্ধ হয়ে গিয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.