বৃহঃ. সেপ্টে ২৪, ২০২০

করোনা ভাইরাসের কারণে সুনামগঞ্জের কর্মজীবী মানুষ কর্মস্থলে যেতে পারছেন না

১ min read

এম রেজা টুনু সুনামগন্জ প্রতিনিধি ঃ করোনাভাইরাসের কারণে সুনামগঞ্জের সবকিছুই যেন থমকে গেছে। কর্মজীবী মানুষ কর্মস্থলে যেতে পারছেন না। খেটে খাওয়া মানুষের দিকে একবার তাকিয়ে দেখুন, যারা দিন এনে দিন খায়। কর্মে স্থবিরতা নেমেছে, নিম্ন আয়ের মানুষগুলো খাবে কি ! সংসার চলবে কি করে ! এরমধ্যে আবার বাড়ী ভাড়া ও দোকান ভাড়া আছে ! মাননীয় সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করছি। জেলার সব বাড়িয়াওলারা ও দোকানের মালিকগন এই দুর্যোগের সময় ভাড়াটিয়াদের পাশে দাঁড়ানো উচিত। নিম্ন আয়ের মানুষগুলোর দিকে সামর্থ্যবানদের সু-দৃষ্টি দেয়ার অনুরোধ করছি।‘আমি এ কে মিলন আহমেদ দেশের একজন নাগরিক হিসেবে অনুরোধ করছি, একটু বিবেচনা করুন। রিকশাওয়ালাদের রাস্তায় যাত্রী নেই, অধিকাংশ ব্যবসায়ীদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ, দিনে এনে দিনে খাওয়া পরিশ্রমী মানুষগুলো আজ বড়োই অসহায়। ভাড়াটিয়াদের দুর্যোগকালীন বাড়ী ভাড়া ও দোকান ভাড়া মওকুফের অনুরোধ করছি স্থগিত করার দাবি জানাচ্ছি। পৃথিবীর সবচেয়ে বড় আদালত হলো মানুষের বিবেক। সকলের বিবেকের কাছেই আমার প্রশ্ন রইলো।

করোনা মোকাবেলায় বাংলাদেশ সরকারকে সহযোগিতা করার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, নিয়ম মেনে চলুন। আল্লাহ’কে ডাকুন, তিনি এই দুর্যোগ থেকে আমাদের রক্ষা করবেন। আমিন।

শুক্রবার (২৭মার্চ) বিকাল পাঁচটায় সার্চ মানবাধিকার সোসাইটি বাংলাদেশ সুনামগঞ্জ জেলা শাখার সাক্ষরিত প্যাডে এসব দাবী করেন। সার্চ মানবাধিকার সোসাইটি বাংলাদেশ সুনামগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি মোহাম্মদ মাহতাব উদ্দিন তালুকদার ও সাধারণ সম্পাদক এ কে মিলন আহমেদের যৌথ বিবৃতিতে এসব কথা বলেন

অসাধু কিছু ব্যবসায়ীরা করোনাভাইরাসকে পুঁজি করে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বৃদ্ধি করার অপচেষ্টা করছে। ‘ওরা করোনার চেয়েও ক্ষতিকর ভাইরাস !’ সংকটময় পরিস্থিতিতে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানো উচিত। নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম কমানোর দাবি জানাচ্ছি।

আরো বলেন, সম্প্রতি দেখেছি ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে বেশকিছু ব্যবসায়ীর অর্থদন্ডও করা হয়েছে। এই অভিযানের প্রশংসা করেছে সাধারণ মানুষ। জেলার প্রতিটি নিত্যপণ্যের বাজারে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নিয়মিত মনিটরিং করার অনুরোধ করছি।

উক্ত প্রেস বার্তায় সংগঠনের মানবাধিকার কর্মীগন এসব দাবী করেন, আনন্দ টিভি সুনামগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি ও মানবাধিকার কর্মী এমরান হোসেন, দৈনিক ডেসটিনি সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি ও মানবাধিকার কর্মী বিপলু রজ্ঞন দাস, মানবাধিকার কর্মী সদীপ্ত চন্দ্র দাস, প্রমুখ।

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.