বৃহঃ. সেপ্টে ২৪, ২০২০

সংবিধানের ৯৫ ও ১১৬ অনুচ্ছেদ কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না : হাইকোর্ট

১ min read

 

 

উচ্চ আদালতে বিচারক নিয়োগ সংক্রান্ত সংবিধানের ৯৫ অনুচ্ছেদ ও অধস্তন আদালতের বিচারকদের চাকরিবিধি সংক্রান্ত ১১৬  অনুচ্ছেদসহ সংবিধানের পাঁচটি অনুচ্ছেদের অংশবিশেষ কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না-সরকারের কাছে তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। এক রিট আবেদনের প্রাথমিক শুনানি শেষে গতকাল বিচারপতি কাজী রেজা-উল হক ও বিচারপতি মোহাম্মদ উল্লাহর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এই রুল  জারি করেন। মন্ত্রিপরিষদ সচিব, আইন মন্ত্রণালয়ের সচিব, সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেলসহ চার বিবাদীকে চার সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে আদেশে। আইনজীবী ইউনুছ আলী আকন্দ গত ৩রা নভেম্বর সুপ্রিম কোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় এই রিট আবেদন করেন। গত ২০শে ফেব্রুয়ারি রিটের চূড়ান্ত শুনানি শেষ হয়।
গতকাল আদেশের পর ইউনুছ আলী আকন্দ মানবজমিনকে বলেন, সংবিধানের ৯৫ (২) (খ), ৯৮, ১১৫, ১১৬ এবং ১১৬ (খ) অনুচ্ছেদ কেন সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক ও অবৈধ ঘোষণা করা হবে না- তা জানতে চেয়ে আদালত রুল জারি করেছেন। রিটকারী এই আইনজীবী জানান, বাহাত্তরের মূল সংবিধানে ১১৬ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী অধস্তন আদালতের বিচারকদের নিয়ন্ত্রণের দায়িত্ব সুপ্রিম কোর্টের হাতে ছিল। কিন্তু পরবর্তীতে চতুর্থ সংশোধনীতে এই ক্ষমতা সুপ্রিম কোর্টের পরিবর্তে প্রেসিডেন্টের কাছে দেয়া হয়, যা সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক। এছাড়া, সংবিধানের ৯৫ অনুচ্ছেদে আইন তৈরি সাপেক্ষে উচ্চ আদালতে বিচারক নিয়োগের বিধান রয়েছে। কিন্তু সংসদে কোনো আইন ছাড়াই ৪৫ বছর ধরে বিচারক নিয়োগ দেয়া হচ্ছে, এটিও সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.