বৃহঃ. সেপ্টে ২৪, ২০২০

দোয়ারাবাজারে আব্দুন নুর হত্যামামলায় গ্রেফতার ১।

এম রেজা টুনু সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারে আব্দুন নুর হত্যা মামলায় সহিদ আলী (৪৫) নামের আরেক আসামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ওই মামলায় এ যাবত দু’জন গ্রেফতার হয়েছে। ঘটনার ২০ দিনেও বাকি ২৪ আমামি এখনও ধরাছোঁয়ার বাইরে। গ্রেফতার হওয়া সহিদ আলী উপজেলার নরসিংপুর ইউনিয়নের দ্বীনেরটুক গ্রামের মৃত ইদ্রিছ আলীর ছেলে। শনিবার (২০ জুন) বেলা ১টার দিকে এস আই সজীব দত্তের নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে ছাতক উপজেলার নোয়ারাই ইউনিয়নের সিঙ্গেরকাছ গ্রামের পুর্বে রাঙাউটি বিল থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। সহিদ আলী এ সময় ওই বিলে মাছ ধরতে ছিল। উল্লেখ্য, গত ২ জুন সন্ধ্যায় দোয়ারাবাজার উপজেলার নরসিংপুর ইউনিয়নের দ্বীনেরটুক দারুল কোরআন আলিম মাদ্রাসার গভর্ণিং বডির সদস্য আব্দুন নুর মাদ্রাসার নতুন ৪র্থ তলা ভবনের নিমার্ণ সামগ্রী সরবরাহকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হাতে খুন হন। তিনি দ্বীনেরটুক গ্রামের মৃত আজমান আলীর পুত্র। ওইদিন (২ জুন) বিকালে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনায় আব্দুন নুর (৬০), তার স্ত্রী ও তিন পুত্র সোহেল আহমদ, রাসেল আহমদ ও জুয়েল আহমদ আহত হন। গুরুতর আহত আব্দুন নুর ও তার জ্যৈষ্ঠ পুত্র সোহেল আহমদকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত ডাক্তার আব্দুন নুরকে মৃত ঘোষণা করেন। বর্তমানে তার পুত্র সোহেল আহমদ চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছেন। এ ঘটনায় নিহতের পুত্র জুয়েল আহমদ বাদি হয়ে প্রতিপক্ষ একই গ্রামের রবিউল হকের পুত্র মর্তুজ আলীকে প্রধান আসামি করে ২৬ জনের বিরুদ্ধে দোয়ারাবাজার থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। দোয়ারাবাজার থানার ওসি আবুল হাশেম ও হত্যামামলার তদন্তকারী অফিসার এসআই সজীব দত্ত গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন,বাকি আসামিদের গ্রেফতারে আমাদের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.