বৃহঃ. সেপ্টে ২৪, ২০২০

হামশকল — আমিনুল হক জাহাঙ্গীর।

১ min read

হামশকল মানে হলো অবিকল একই রকম চেহারার একাধিক মানুষ থাকলে তাদেরকে একে অন্যের হামশকল বলা হয়।সম্ভবত এটা উর্দু শব্দ।হিন্দিও হতে পারে।এই হামশকলের একজন সুবিধাভোগী আমি।জীবনে বহুবার আমি এটার সুবিধা পেয়েছি।সেই শৈশব কাল থেকে আজ পর্যন্ত।
ঘটনা-১
********
তখন আমি নবম শ্রেণিতে পড়ি।আমার স্কুলটা কেন্দ্র হাই স্কুল।১৯৯১ সনে এটা সরকারি স্কুলে পরিণত হয়।
তখন এস,এস,সি পরীক্ষা চলছিলো।পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে আমি কেন্দ্রে ঘুরাঘুরি করে কাছেই হেড স্যারের বাসায় গিয়ে ঢুকে পড়ি।তখন আরো ছেলেমেয়ে স্যারের বাসার ভিতরে ঘুরাঘুরি করছিলো।আমি একটা ঘরের ভিতর বিছানায় বসে তাদের মুভমেন্ট দেখছিলাম।হঠাৎ মেম মানে স্যারের বেগম সাহেবা পায়েশ নিয়ে আমার মুখের সামনে বাড়িয়ে ধরে বললেন,বাবা খাও।
আমি এতটাই অবাক হই যে বলে বসি
ঃখালামনি আমাকে বলছেন?বলে ডানে বায়ে তাকিয়ে দেখি আরও কেউ আছে কিনা।
ঃহ্যা বাপু তোমাকেই বলছি।নাও ধরো।
ঃআমার জন্য হঠাৎ কেন কষ্ট করতে গেলেন খালামনি?
ঃদেখো বাপু তুমি কিন্তু আমার আত্মীয় হও।তোমার মা আমার খালাতো বোন হন।
খালামনি মাকে নিয়ে দীর্ঘ স্মৃতি চারণ করতে লাগলেন।
তারা এক সাথে কলেজে পড়তেন।কিন্তু, আমার মা তো অষ্টম শ্রেণির বেশি পড়েন নি।আর ওনি বলছেন মায়ের সাথে কলেজে পড়তেন।আবার খালাতো বোনও।
তখনও আমি কিছু বুঝতে পারিনি।ওনি আবার মাকে দাওয়াতও করলেন।আমি সেই দাওয়াত মাকে পৌছে দিলে মাও হতবাক হলেন।অবশেষে বড় আপা বুঝতে পারলো আসল ঘটনা।হাসতে হাসতে বললেন তোর চেহারার সাথে ওনার কোনো আত্মীয়ের চেহারার মিল থাকায় ওনি এমন করেছেন।জানিনা ওই খালামনি এখন কোথায় আছেন,কেমন আছেন।যেখানেই থাকুন ভালো থাকুন।
ঘটনা-২
********
তখন আমি মাস্টার্সে পড়ি।জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে। ভূগোলের ছাত্র ছিলাম।একদিন আমার এক মামাত ভাইকে নিয়ে শিশু পার্কে বেড়াতে গেলাম।হঠাৎ একদল কিশোর কিশোরী আর বয়স্ক এক ভদ্রমহিলা আমাকে এসে ঘিরে ধরেন।কি এক নাম ধরে এক নাগারে কি সব বলে যাচ্ছে সবাই।আমি একটা সময় হতাশ হয়ে বলেই ফেলি,
ঃদেখুন আপনারা ভুল করছেন,আমি আপনাদের পরিচিত কেউ নই।
ঃ ওই দেখো,সেদিনের গোস্যা এখনও রয়ে গেছে।একজন চশমা ওয়ালী কিউটের ডিব্বা কিশোরী বলে উঠে।
ঃএই চলোতো, আগে ওকে নিয়ে কিছু খাই।তারপর কথা হবে।
ওদের সাথে গিয়ে কোমল পানীয় পান করতে করতে ক্লিয়ার হয়ে যায় যে আসলেই আমি ওদের ওই আত্মীয় নই।আমি বিলটা দিতে চাইলেও ওরা দিতে দেয়নি।অনেকটা সময় ওদের সাথে আমায় সেদিন থাকতে হয়েছিলো।যদিও কথা দিয়েছিলাম যে একদিন ওদের বাড়িতে যাবো কিন্তু সেই কথা আর রাখতে পারিনি।
আসলে কেউই কথা রাখেনা।

ঘটনা-৩
*********
এবারের ঘটনা খুবই মর্মান্তিক।কিশোরগঞ্জের কোনো এক মার্কেটে কয়েক বন্ধু মিলে শপিং করছিলাম।হটাৎ এক মধ্যবয়সী নারী ছুটে এসে আমায় জড়িয়ে ধরে ভয়াবহ কান্না জুড়ে দেন।বপ আমার,সোনা আমার,লক্ষী ছেলে আমার,কতদিন পরে আজ তোকে পেয়েছি। তুই রাগ করে কেন বাড়ি ছেড়ে চলে গেলি।
ততক্ষণে আরও অনেকেই এসে জড়ো হয়েছে সেখানে।
হটাৎ এক সুন্দরী তরুণী আমার সামনে হাত জুড়ে ক্ষমা চাইতে শুরু করে।আমি তখন রীতিমতো ঘামতে শুরু করেছি।কি বিপদে যে পড়লাম।আমার বন্ধুরাও তবদা মেরে গেছে।ওরাও ঠিক বুঝতে পারছিলো না কি ঘটছে।ওদের সব খুলে বললেও ওরা কিছুতেই মানতে চাইছিলো না যে আমি আসলেই তাদের ছেলে নই।
শেষে ওই তরুণীকে বললাম,ভালো করে আমার মুখটা দেখে বলেন তো আসলেই আমি আপনার স্বামী কিনা।
সে কতক্ষণ খুঁটিয়ে খুঁটিয়ে দেখে বলতে শুরু করলো হ্যা ঠিকই তো আছে।তুমি এমন করছো কেন?এখন বাড়ি চলো।ইচ্ছে করছিলো বাড়িতে গিয়ে মজাটা দেখে আসি।কিন্তু কারো এটো পাতে খাওয়ার রুচি না হওয়ায়
নিজেকে সংযত করি।তারপর আমার বন্ধুরা নানা কথা বলে ওদের ভুলটা ভাঙাতে সক্ষম হয়।ওরা যেতে যেতে চোখের জল ফেলছিলো।ওদের বাড়ির বড় ছেলে রাগ করে মা বাবা বউ বাচ্চা সব ফেলে কিছু দিন আগে নিরুদ্দেশ হয়ে যায়।আজও ফিরে আসেনি।অনেক খুজেও পাওয়া যায়নি।

ঘটনা-৪
********
এবার আর কোনো ঘটনার কথা বলবোনা। বলার মতো অনেক ঘটনা থাকলেও না।এখন যা বলবো তা হলো
এখনও প্রায়ই নানা জনের কাছে শুনি আমি নাকি দেখতে হুবহু তাদের অমুক আর তমুকের মতো।আমার মুখের দিকে অপলক চোখে চেয়ে থাকে।তখন খুব আন ইজি ফিল করি।বিশেষ করে কম বয়সী মহিলা বা মেয়েরা যদি সেই ভুলটা করে তাহলেতো শংকিত না হয়ে পারিনা।বিধাতাকে তখন বলি, হায় বিধাতা,তুমি এটা কি করলে।কেন আমার চেহারাটা এমন বানালে?
অন্তত গায়ের রঙটাও যদি হয় ফর্সা না হয় আলকাতরা কালো হতো তাহলে তো এমন অবস্থায় পড়তে হতোনা।
হায় বিধাতা,হায়।

 

লেখক পরিচিত
***************
নামঃআমিনুল হক জাহাঙ্গীর।
পিতা-মৃত আঃ জলিল ফার্মাসিস্ট।
মাতা-হোসনে আরা বেগম।
স্থায়ী ঠিকানা, গ্রাম-চন্ডীপাশা।
ডাকঘর ও উপজেলা – নান্দাইল।
জেলা-ময়মনসিংহ।
জন্ম-১২-০৪-১৯৭২ খ্রীঃ।
শিক্ষা -বি,এস-সি(গণিত) এম,এ(ইংরেজী)।
পেশা- শিক্ষকতা।
বর্তমান কর্মস্থল- সহকারী প্রধান শিক্ষক,
হোসেনপুর আদর্শ হাই স্কুল, হোসেনপুর,কিশোরগঞ্জ।

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.