অক্টোবর ২০, ২০২০

সুনামগঞ্জে ৪জন ভিক্ষুককে মুদি দোকানের মালামাল প্রদান করেন সদর উপজেলা চেয়ারম্যান চপল।  

এম রেজা সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পরিকল্পনা অনুযায়ী ভিক্ষুকদের পূনবাসনের আওতায় সুনামগঞ্জে ৪জন ভিক্ষুককে মুদি দোকানের মালামাল প্রদান করা হয়েছে।
বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় সুনামগঞ্জ সদর উপজেলা পরিষদের উদ্যোগে পরিষদের সামনে ঐ সমস্ত ভিক্ষুকদের হাতে মুদি দোকানের পন্যসামগ্রী চাল,ডাল আটা,ময়দা তৈল দুধসহ বিভিন্ন ধরনের সামগ্রী তুলে দেন জেলা যুবলীগের আহবায়ক ও সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান খায়রুল হুদা চপল ও সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইয়াসমিন নাহার রুমা।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন,উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান নিগার সুলতানা কেয়া,ভাইস চেয়ারম্যান এড. মোঃ আবুল হোসেন,সুনামগঞ্জ পৌরসভার সাবেক ভারপ্রাপ্ত মেয়র ও জেলা যুবলীগের সিনিয়র সদস্য নুরুল ইসলাম বজলু ও ছাত্রলীগ নেতা অমিয় মিত্র প্রমুখ। এর আগে প্রধানমন্ত্রীর পরিকল্পনা অনুযায়ী ভিক্ষুকদের পূনবাসনের আওতায় আরো ২৫জন ভিক্ষুককে সদর উপজেলা পরিষদের উদ্যোগে ভেড়া ছাগল প্রদান করা হয়।
সুনামগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইয়াসমিন নাহার রুমা বলেন,দেশ সর্বক্ষেত্রে এগিয়ে যাচ্ছে এর বড় উদাহরণ প্রধানমন্ত্রীর পরিকল্পনা অনুযায়ী দেশে ভিক্ষুকদের পূর্নবাসনের কার্যক্রম পরিচালনা করা শুরু করেছেন। দেশের মানুষের গড় মাথাপিচু আয় অনেক বেড়েছে। আজ মানুষজন স্বাচ্ছন্দ্যে জীবনযাপন করতে শুরু করেছেন। এই ধারা সমুন্নত রাখতে আমরা প্রজাতন্ত্রের কর্মকর্তা ও কর্মচারী হিসেবে সরকারের নির্দেশনা বাস্তবায়নে বদ্ধপরিকর বলে তিনি জানান। তিনি বলেন যারা পেঠের দায়ে এতদিন ভিক্ষা করেছেন এখন থেকে তারা ভিক্ষাবৃত্তি ছেড়ে দিয়ে মুদি দোকানের মাধ্যমে মালামাল কেনাবেচা করে জীবনচিত্র বদলে দিতে পারেন বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান খায়রুল হুদা চপল বলেন,জাতির পিতার কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তার সরকার দেশকে উন্নয়নের শিখরে এগিয়ে নিতে আগে মানুষজনের উন্নয়নের দিকে খেয়াল দিয়েছেন।এজন্য দেশ থেকে ভিক্ষকুদের ভিক্ষা করা থেকে ফিরিয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে আনতে ভিক্ষকু পূর্নঃবাসন কার্যক্রম শুরু করেছেন। তিনি বলেন দেশে আর কোন মানুষ না খেয়ে থাকবে না। প্রতিটি মানুষের জন্য একটি উন্নত জীবন গড়ে তুলতে দেশে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করার পাশাপাশি শিক্ষা,স্বাস্থ্য,বাসস্থানসহ রাস্তাঘাটের উন্নয়ন সাধিত করে গ্রামকে শহরে পরিণত করার কাজ দ্রæত গতিতে চলছে। তাই শেখ হাসিনার একজন আদর্শের সৈনিকের পাশাপাশি একজন জনপ্রতিনিধি হিসেবে এই সদর উপজেলার মানুষজনের মৌলিক অধিকার সবগুলো বাস্তবায়নের জন্য নিরলসভাবে কাজ করে যাওয়ার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন খায়রুল হুদা চপল।

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.