মে ১১, ২০২১

দক্ষিণ সুনামগঞ্জে দপ্তরীকে গাছে বেধে পিঠানোর দায়ে থানায় অভিযোগ দায়ের

এম রেজা টুনু সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি
সুনামগঞ্জের দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার শিমুলবাক ইউনিয়নের মুক্তাখাই সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দপ্তরীকে স্কুলে দায়িত্ব পালনরত অবস্থায় এক সুদখোর মহাজন টাকা পাবে বলে তাকে গাছের সাথে বেঁধে বেদড়ক পিটানোর মতো একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। দপ্তরীর নাম মো. তোফায়েল মিয়া(২৭)। সে মুক্তাখাই গ্রামের মৃত ফজর আলীর ছেলে। নির্যাতনকারীর নাম মো.শাহানুর মিয়া। সে ও একই গ্রামের মো. আনোয়ার মিয়ার ছেলে। বুধবার বিকেলে এ নির্যাতনের ঘটনাটি ঘটে।
স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়,নির্যাতনকারী দাদন ব্যবসায়ী শাহানুর মিয়া চক্রবর্তী সূদে এক লাখ টাকা ঐ দপ্তরী দেয়। কিন্তু টাকা সময় মতো পরিশোধ করতে পারেনি বলেই তাকে গাছের সাথে বেধেঁ বেথের রোল দিয়ে পেঠাতে থাকে। তার চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে সে তাদের ও অপমানিত করে। নির্যাতনকারী এ সময় আরো বলেন আমার এক লাখ টাকা না দিলে তোর এমন কোন বাবা নেই তোকে আমার নিকট হতে উদ্ধার করতে পারবে।এভাবে বলে হুংকার দিয়ে দপ্তরীতে বেদড়ক পেঠাতে থাকে।
পরে স্থানীয় লোকজন পুলিশকে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাকে উদ্ধার করে প্রথমে থানায় নিয়ে আসা হয়।এই দপ্তরী নিজে বাদি হয়ে নির্যাতনকারী শাহানুরকে আসামী করে রাতেই দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। তবে নির্যাতনকারী পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। পরে তাকে চিকিৎসার জন্য সুনামগঞ্জ জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।
এ ব্যাপারে দক্ষিণসুনামগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ কাজি মো. মোক্তাদির হোসেন চৌধুরী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিতকরে জানান,মামলা হয়েছে এবংআসামীকে ধরতে পুলিশের অভিযান অব্যহত রয়েছে।

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.