মে ৬, ২০২১

সুনামগন্জ আদালত থেকে পলাতক আসামী সিলেটে গ্রেফতার

এম রেজা টুনু সুনামগন্জ থেকে:সুনামগঞ্জের জেলা সদরের আদালত প্রাঙ্গণ থেকে পালিয়ে যাওয়া স্ত্রী খুনের মামলার আসামী ইকবাল হোসেন (৩৫) কে সিলেটের লাক্কাতোরা চা বাগান থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ঘটনার ৯ দিন পর শুক্রবার সন্ধ্যার পর সুনামগঞ্জ জেলা গোয়েন্দা পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। বর্তমানে তাকে সুনামগঞ্জ সদর পুলিশের হেফাজতে রাখা হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান বলেন,‘পুলিশ হেফাজত থেকে পালিয়ে যাওয়া হত্যা মামলার আসামী ইকবাল হোসেনকে সিলেট থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে সুনামগঞ্জ কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক একটি মামলা করেছে। দুইটি মামলার আসামী হিসেবে তাকে আগামীকাল শনিবার আদালতে সোপর্দ করা হবে।’

প্রসঙ্গত, গত ৯ ডিসেম্বর বুধবার দুপুরে জেলা কারাগার থেকে আদালতে হাজিরা দিতে আনা স্ত্রীকে খুনের মামলার আসামী ইকবাল হোসেন আদালত প্রাঙ্গণ থেকে পালিয়ে যায়। সে দোয়ারাবাজার উপজেলার বাংলাবাজার ইউনিয়নের উস্তেংগের গ্রামের রমজান আলীর ছেলে।

জানা যায়, ৯ ডিসেম্বর বুধবার সকালে সুনামগঞ্জ শহরতলির হালুয়ারগাঁও এর জেলা কারাগার থেকে দোয়ারাবাজার উপজেলার বাংলাবাজার ইউনিয়নের কিরনপাড়া গ্রামের মনোয়ারা বেগম (স্ত্রী) হত্যা মামলার আসামী স্বামী ইকবাল হোসেনকে আদালতে হাজির করার জন্য নিয়ে আসে কোর্ট পুলিশ। পরে দুপুরে আদালত প্রাঙ্গণ থেকে সকলের অলক্ষ্যে পালিয়ে যায় ইকবাল হোসেন। সন্ধ্যার পর অন্য আসামীদের ফিরিয়ে দেওয়া হলেও ইকবাল হোসেনকে কারাগারে ফেরৎ না দেওয়ায় বিষয়টি জানাজানি হয়।

২০১৩ সালে দোয়ারাবাজার উপজেলার বাংলাবাজার ইউনিয়নের কিরনপাড়া গ্রামের মনা মিয়ার মেয়ে মনোয়ারা বেগমকে বিয়ে করেন ইকবাল হোসেন। বিয়ের ৪ বছর পর ২০১৭ সালের জুন মাসে ইকবাল হোসেন তার স্ত্রী মনোয়ারা বেগম খুন করে লাশ জঙ্গলে লুকিয়ে রাখে। মনোয়ারা বেগমের লাশ পচে দুর্গন্ধ বের হলে গলিত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় ২০১৭ সালের ১৩ জুন মনোয়ারা বেগমের মা আমিনা বেগম বাদী হয়ে ইকবাল হোসেনকে আসামী করে দোয়ারাবাজার থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। মামলাটি এখনও বিচারাধীন আছে।

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.