মে ৬, ২০২১

মেয়রের চেয়ে কাউন্সিলরদের প্রচার প্রচারনায় সরব সুনামগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচন

১ min read

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃসুনামগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনের আর মাত্র কয়েক দিন বাকি রয়েছে। ইতিমধ্যে নির্বাচনী মাঠে চলছে প্রার্থীদের শেষ মুহূর্তের প্রচার-প্রচারণা। সকাল থেকে গভীরতা রাত পর্যন্ত ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ঘুরে বেড়াচ্ছেন প্রার্থীরা। তবে এবার নির্বাচনের মূল আকর্ষণ মেয়র পদটি নিয়ে পৌরসভার ভোটারদের মধ্যে খুব একটা আগ্রহ দেখা যাচ্ছেনা। পৌর নির্বাচনের মূল কেন্দ্রবিন্দু কাউন্সিলর ও মহিলা কাউন্সিলর নির্বাচন নিয়ে। পৌরশহরের বিভিন্ন বিপিনীবিতান সহ মহল্লার চায়ের দোকানে আড্ডায় ভোটাররা কাউন্সিলর প্রার্থীদের নিয়ে চুলচেরা বিশ্লেষণ করলেও নির্বাচনের প্রধান আকর্ষণ মেয়র পদটি নিয়ে আগ্রহ নেই বল্লেই চলে।

নির্বাচন অফিস সুত্রে জানা গেছে, যথা সময়ে ১৬ ই জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে সুনামগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচন। এবার পৌরসভায় মোট ভোটার সংখ্যা ৪৭০১৫ জন এর মধ্যে পুরুষ ভোটার সংখ্যা ২৩২৩৮ জন ও নারী ভোটার সংখ্যা ২৩৭৭৭ জন। ২৩ টি ভোট কেন্দ্রের ১২৬ টি কক্ষের ভোট গ্রহন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগ বিএনপির ও ইসলামি আন্দোলনের মনোনীত প্রার্থীসহ তিনজন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এছাড়াও সাধারণ ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদে ৯টি ওয়ার্ডে ৪৯ জন এবং সংরক্ষিত ৩ টি ওয়ার্ডে মহিলা কাউন্সিলর পদে আর ১৩ জনসহ মোট ৬২ জন প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।
দ্বিতীয় ধাপে সুনামগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী নৌকা প্রতীকে নাদের বখত, বিএনপির প্রার্থী ধানের শীষ প্রতীকে মুর্শেদ আলম ও ইসলামি আন্দোলনের প্রার্থী হাত পাখা প্রতীকে মোহাম্মদ রহমত উল্লা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।
প্রসঙ্গত, সুনামগঞ্জ পৌরসভাটি ১৯১৯ খ্রিষ্টাব্দে গঠনে পর থেকে আনুষ্ঠানিক এ পর্যন্ত অনেকবার নির্বাচন হয়েছে। এতে মেয়র পদে অনেক প্রার্থীই তিনবার দু’বার করে অনেকেই মেয়র নির্বাচিত হন।

ভোটারদের সঙ্গে নির্বাচনের পরিবেশ-পরিস্থিতি নিয়ে কথা হলে অভিন্ন মতামত প্রকাশ করেছেনে। এসময় সাধারণ ভোটারগণ সুনামগঞ্জ পৌরসভায় নির্বাচনকে বিগত নির্বাচনের তুলনায় ভিন্ন রূপ নিয়েছে বলে মন্তব্য তুলেন। ভোটারদের মতে, আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী ও পৌরসভার বর্তমান মেয়র নাদের বখত তফসিল ঘোষণার আগে থেকেই নির্বাচনের প্রচার-প্রচারণা চালিয়েরেখেছেন। তিনি অন্য দুই প্রার্থীর চেয়ে শক্ত অবস্থানে রয়েছেন। বিএনপির প্রার্থী সম্পর্কে ভোটারদের কয়েকজন মন্তব্য করে বলেন, মুর্শেদ আলম একজন বি.এন.পির সক্রিয় কর্মী তবে তৃণমূলের সঙ্গে তাঁর খুব একটা যোগাযোগ নেই। তাই এবারের নির্বাচনী মাঠে তিনি খুব একটা শক্ত অবস্থানে নেই বললেই চলে।
এব্যাপারে বিএনপির মেয়র প্রার্থী মুর্শেদ আলম বলেন, আমার জনপ্রিয়তা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। নির্বাচন সুষ্ঠু হলে আমি জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে পৌরসভার একাধিক ভোটার বলেন, ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী নাদের বখত নির্বাচনী মাঠে ভালো অবস্থানে থাকায় ভোটাররা অন্য প্রার্থীদের দিকে ঝুঁকছেন না। বিএনপি ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ প্রার্থী নির্বাচনী মাঠ গরম করতে না পারায় ভোটারদের কাছে নির্বাচনে মেয়র পদের ফলাফল কিছুটা অনুমেয়। তাই ভোটাররা মেয়র প্রার্থীর চেয়ে কাউন্সিলর ও মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থী বিশ্লেষণে বেশি আগ্রহী।

রিটার্নিং কর্মকর্তা ও সুনামগঞ্জ জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শরিফুল ইসলাম বলেন, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত নির্বাচনের পরিবেশ অত্যন্ত সুন্দর আছে।

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.