মে ৯, ২০২১

আ.লীগ প্রার্থীকে হারিয়ে নৈশ্যপ্রহরী এখন মেয়র!

সাইদুর রহমান:: রাজশাহীর তানোর উপজেলার মুণ্ডুমালার এ বাসিন্দা পেশায় একটি কলেজের নৈশ্যপ্রহরী। কর্মস্থল থেকে ১৫ দিনের ছুটি নিয়ে মুণ্ডুমালা পৌরসভার নির্বাচনে অংশ নেন তিনি।

গত শনিবার তৃতীয় ধাপে অনুষ্ঠিত ভোটের আগে বড় কয়েকটি বাধা পার হতে হয়েছে তাকে। সব বাধা উপক্ষো করে আওয়ামী লীগের প্রার্থীকে হারিয়ে সাইদুর রহমান নির্বাচিত হয়েছেন মেয়র পদে।

নির্বাচন করার আগে মুণ্ডুমালা মহিলা ডিগ্রি কলেজের নৈশ্যপ্রহরী সাইদুর রহমান পৌর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক পদে ছিলেন।

 

 

মেয়র পদে নির্বাচনের জন্য আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন চেয়েছিলেন। দল থেকে তাকে নির্বাচন না করার জন্য বলা হয়। যে কারণে দল থেকে পদত্যাগের ঘোষণা দেন। নির্বাচন করবেনই জানা পর দল থেকেও তাকে বহিষ্কারের কথাও জানানো হয়।

শনিবার রাতে উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার মো. কামরুজ্জামান অনুষ্ঠিত ভোটের ফলাফল প্রকাশ করেন।

এ থেকে জানা গেছে, মুণ্ডুমালা পৌরসভার নির্বাচিত মেয়র পদে সাইদুর রহমান জগ প্রতীকে ৫ হাজার ৪৫৯ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে বিজয়ী হয়েছেন। আওয়ামী লীগ থেকে মনোনীত নৌকার প্রতীকের প্রার্থী আমির হোসেন আমিনকে ৬১ ভোটে হারিয়েছেন তিনি। আমিন পেয়েছেন ৫ হাজার ৩৯৮ ভোট। বিএনপির প্রার্থী ফিরোজ কবির ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৩ হাজার ৩৮১ ভোট।

নবনির্বাচিত মেয়র সাইদুর রহমান বলেন, ‘পেশায় আমি সামান্য নৈশ্যপ্রহরী হতে পারি। কিন্তু মানুষের জন্য আমার ভালোবাসা অফুরন্ত। তার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত করোনাকালে এলাকার মানুষের পাশে থাকা ও তাদের সহযোগিতায় এগিয়ে যাওয়া। যতটুকু পেরেছি সাধ্যমতো এলাকার মানুষের সাহায্যে এগিয়ে গেছি। তাই মানুষ ভালোবেসে আমাকে পৌর মেয়ের করেছে, তার কৃতজ্ঞ তাদের প্রতি।’

তিনি বলেন, ‘ইচ্ছা ছিল দল থেকে মনোনয়ন নিয়ে মানুষের সেবা করার। কিন্তু দল থেকে মনোনয়ন চেয়েও পায়নি। তাই পদত্যাগ করার ঘোষণা দিয়েছি। কারণ, দল থেকে না পারি মেয়র হয়ে অন্তত মানুষের সেবা করতে পারব বলে আশা করি।’

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.