মে ৬, ২০২১

বসুন্ধরা গ্রুপের পরিচালক আহমেদ আনভীরের গার্লফ্রেন্ড মুনিয়ার লাশ রাজধানীর গুলশানের একটি অভিজাত ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার।

১ min read

ডেস্ক রিপোর্ট::বসুন্ধরা গ্রুপের মালিক শাহ আলমের ছেলে ও ঐ গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আহমেদ সোবহান আনভীরের গার্লফ্রেন্ড মোসারাত জাহান মুনিয়ার লাশ রাজধানীর গুলশানের একটি অভিজাত ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ।

জানা গেছে গুলশান-২ এর ১২০ নম্বর রোডের ১৯ নম্বর বাড়ির ফ্ল্যাট বি-৩ এপার্টমেন্টটি দুই মাস পূর্বে এক লক্ষ টাকায় ভাড়া নিয়েছিলেন আহমেদ সোবহান আনভীর। উক্ত বাসায় মুনিয়া থাকত এবং আনভীর মাঝে মাঝে উক্ত বাসায় আসা যাওয়া করতেন।

গুলশান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল হাসান জানিয়েছেন, ওই তরুণী ফ্ল্যাটটিতে একাই থাকতেন। সোমবার সন্ধ্যায় গ্রামের বাড়ি কুমিল্লা থেকে তার বোন এসে দরজা বন্ধ পান। তিনি মুনিয়াকে ফোন দিলেও রিসিভ করছিলেন না। এরপর পুলিশকে খবর দিলে রাতে বাইরে থেকে তালা ভেঙে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহতের স্বজনের বরাতে পুলিশ জানায়, মুনিয়া তার বড় বোনকে ফোন করে বলেছিলেন ঝামেলায় পড়েছেন। এ কথা শুনে তার বোন সোমবার কুমিল্লা থেকে ঢাকায় এসে সন্ধ্যার দিকে ওই ফ্ল্যাটে যান। দরজায় ধাক্কাধাক্কি করলেও বোন দরজা খুলছিলেন না। এরও কিছুক্ষণ আগে থেকে তিনি মুনিয়ার ফোন বন্ধ পাচ্ছিলেন।

নিহত মুনিয়া ঢাকার একটি কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী ছিলেন। তার গ্রামের বাড়ি কুমিল্লায়। তার লাশ সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় পায়। ওসি বলেন, ‌‘প্রাথমিকভাবে গলায় ফাঁস লাগিয়ে ওই তরুণী আত্মহত্যা করেছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে ময়নাতদন্তের আগে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে না।’

উল্লেখ্য, ১০ মাস আগে আনভীরের পিতা আহমদ আকবর সোবহান শাহআলমের বাসায় বাজার করার দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মী সাইফুলকে দড়িতে ঝুলে থাকতে দেখা যায়। হত্যার অভিযোগ ওঠার পরে শাহআলম সাহেব কিছুদিন গা ঢাকা দেন। দেখা যাক এবারে কি ঘটে?

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.