অক্টোবর ২৭, ২০২০

শিগগির হতে যাচ্ছে ঢাকা মহানগর বিএনপির নতুন কমিটি

১ min read

দক্ষিণে হাবিব-উন নবী খান সোহেল সভাপতি ও ইউনূস মৃধা সাধারণ সম্পাদক হচ্ছেন।আর উত্তরে এমএ কাইয়ুম সভাপতি ও আহসানউল্লাহ হাসান সাধারণ সম্পাদক হচ্ছেন

নতুন আলো নিউজ ডেস্ক :শিগগির ঢাকা মহানগর বিএনপির নতুন কমিটি গঠন করা হচ্ছে। এবার ঢাকা সিটি করপোরেশনের আদলে উত্তর ও দক্ষিণ দুটি কমিটি করা হবে। দক্ষিণে হাবিব-উন নবী খান সোহেল সভাপতি ও ইউনূস মৃধা সাধারণ সম্পাদক হচ্ছেন। আর উত্তরে এমএ কাইয়ুম সভাপতি ও আহসানউল্লাহ হাসান সাধারণ সম্পাদক হচ্ছেন। চলতি সপ্তাহে নতুন কমিটি ঘোষণা করা হতে পারে বলে দলের একাধিক নির্ভরযোগ্য সূত্র জানিয়েছে।

বিএনপির তৃণমূল পুনর্গঠনের সমন্বয়কারী ও সহসভাপতি মোহাম্মদ শাহজাহান সমকালকে বলেন, শিগগির নতুন কমিটি ঘোষণা করা হতে পারে। দলের হাইকমান্ড যোগ্য ও ত্যাগী নেতাদের সমন্বয়ে নতুন কমিটি গঠন করবেন। সূত্র জানায়, বেশ কিছুদিন ধরে বিএনপির ঢাকা মহানগর কমিটি গঠন নিয়ে জোর তদবির ও লবিং চলছে। দলের ঢাকা মহানগরের দুই কাণ্ডারি বর্তমান আহ্বায়ক ও স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস এবং সাবেক আহ্বায়ক ও কেন্দ্রীয় সহসভাপতি সাদেক হোসেন খোকা নিজেদের অনুসারীদের নেতৃত্বে আনতে জোর তৎপরতা চালিয়ে আসছেন। খোকা দীর্ঘদিন নগর বিএনপির নেতৃত্বে থাকায় তৃণমূল পর্যায়ে তার অনুসারীদের শক্ত অবস্থান রয়েছে। অন্যদিকে বর্তমান আহ্বায়ক হিসেবে আব্বাসও একটি গ্রুপ তৈরি করেছেন। এ পরিস্থিতিতে দু’পক্ষ নিজেদের অনুসারীদের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক করতে চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও লন্ডনে অবস্থানরত সিনিয়র সহসভাপতি তারেক রহমান এবং মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের কাছে জোর তদবির ও লবিং চালিয়ে যাচ্ছেন।

নাম প্রকাশ না করে বিএনপির কয়েকজন শীর্ষস্থানীয় নেতা বলেছেন, নানা হিসাব-নিকাশ কষে দলের হাইকমান্ড ঢাকা মহানগরীতে দুটি কমিটি গঠন করতে যাচ্ছেন। এ ক্ষেত্রে দলের হেভিওয়েট নেতারা আর নেতৃত্বে থাকছেন না। তুলনামূলক তরুণ নেতৃত্ব দিয়েই গঠন করা হচ্ছে দুটি কমিটি।

সূত্র জানায়, এবার নতুন কমিটিতে আর মির্জা আব্বাস ও সাদেক হোসেন খোকা কারও একচ্ছত্র আধিপত্য থাকছে না। দক্ষিণে বর্তমান সদস্য সচিব হাবিব-উন নবী খান সোহেল। তার সঙ্গে মির্জা আব্বাসের কিছুটা দূরত্ব রয়েছে। মির্জা আব্বাস সদস্য সচিব হিসেবে তাকে ভালোভাবে গ্রহণ করেননি। সোহেল দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিশ্বস্ত। অন্যদিকে বর্তমান আহ্বায়ক কমিটির সদস্য ইউনূস মৃধা মির্জা আব্বাসের ঘনিষ্ঠ নেতা। আব্বাসের পছন্দেই তাকে সাধারণ সম্পাদক করা হচ্ছে। এ ছাড়া আব্বাসের আরেক অনুসারী ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক হাবিব উর রশীদ হাবিব সাধারণ সম্পাদক হতে জোর লবিং চালিয়ে যাচ্ছেন।

সূত্র আরও জানায়, উত্তরের সভাপতি হচ্ছেন ঢাকা মহানগর বর্তমান আহ্বায়ক কমিটির সদস্য এমএ কাইয়ুম। তিনি সাদেক হোসেন খোকার অনুসারী নেতা। একই সঙ্গে দলের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের পছন্দের নেতা। এ ছাড়া সাধারণ সম্পাদক হচ্ছেন সাবেক কাউন্সিলর আহসান উল্লাহ হাসান। তিনিও সাদেক হোসেন খোকার অনুসারী।

২০১৪ সালের ১৮ জুলাই ঢাকা মহানগরে মির্জা আব্বাসকে আহ্বায়ক, আবদুল আউয়াল মিন্টুকে প্রথম যুগ্ম আহ্বায়ক ও হাবিব-উন নবী খান সোহেলকে সদস্য সচিব করে ৫২ সদস্যের আহ্বায়ক কমিটি গঠন করে বিএনপি। এই আহ্বায়ক কমিটিকে এক মাসের মধ্যে ওয়ার্ড-থানা কমিটি গঠন করে পরবর্তী এক মাসের মধ্যে সম্মেলন করে মহানগরের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের সময়সীমা বেঁধে দেয় কেন্দ্র। তবে কোন্দলের কারণে ঢাকা মহানগরের অধিকাংশ থানা ও ওয়ার্ডের কমিটি গঠন করা সম্ভব হয়নি। মির্জা আব্বাস ও সাদেক হোসেন খোকার অনুসারীরা পাল্টাপাল্টি কমিটি গঠন করে খালেদা জিয়ার কাছে জমা দেন।

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.