মার্চ ৬, ২০২১

এই স্যাটেলাইট আঞ্চলিক উন্নয়নে ভূমিকা রাখবে: প্রধানমন্ত্রী

১ min read

নতুন আলো নিউজ ডেস্ক: দক্ষিণ এশিয়া স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণের মাধ্যমে মহাকাশের সহযোগিতা আঞ্চলিক শান্তি প্রতিষ্ঠা ও উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, বাংলাদেশ ও ভারত যৌথভাবে এ অঞ্চলের দেশগুলোর মধ্যে সম্পর্ক সুদৃঢ়করণে অনেক সাফল্য অর্জন করেছে। আমি এ বিষয়ে নিশ্চিত যে, এই স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণে দক্ষিণ এশিয়ায় দেশগুলোর দৃশ্যপট বদলে দেবে। ফলপ্রসূ যোগাযোগের মাধ্যমে আমাদের জনগণ উপকৃত হবে।

শুক্রবার সন্ধ্যায় গণভবন থেকে দক্ষিণ এশীয় স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ উপলক্ষে আয়োজিত যৌথ ভিডিও কনফারেন্সের আলোচনায় তিনি এসব কথা বলেন। বাংলাদেশ, আফগানিস্তান, শ্রীলংকা, নেপাল, ভুটান, মালদ্বীপ ও ভারতের সরকার ও রাষ্ট্রপ্রধানরা এই ভিডিও কনফারেন্সে সরাসরি যুক্ত ছিলেন। কনফারেন্সে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সূচনা ও সমাপনী বক্তৃতা প্রদান করেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ‘হাসিনা জি’-সম্বধন করে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি তার বক্তব্যে বলেন, সবকা সাথ, সবকা বিকাশ (সবার সঙ্গে সবার উন্নয়ন)। তিনি বলেন, এটি হবে দক্ষিণ এশিয়ায় ভারতের একটি উপহার। আবহাওয়া ও টেলিযোগাযোগের পাশাপাশি এই স্যাটেলাইটের মাধ্যমে নিজেদের চাহিদা পূরণ করতে পারবে সংশ্লিষ্ট দেশ। তিনি আরো বলেন, আঞ্চলিক সহযোগিতার ক্ষেত্রে আকাশের কোনো সীমা নেই।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার বক্তব্যের শুরুতে নরেন্দ্র মোদিকে ‘নরেন্দ্র মোদি জি’ সম্বধন করে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। তিনি বলেন, আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি দক্ষিণ এশীয় অঞ্চলের জনগণের উন্নতি সহযোগিতার নানাক্ষেত্রে দেশগুলোর সফলভাবে সম্পৃক্ত হওয়ার ওপর নির্ভর করছে।

প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, আমরা দক্ষিণ এশিয়ার সকল দেশের সঙ্গে সহযোগিতার মাধ্যমে এই অঞ্চলকে একটি শান্তিপূর্ণ অঞ্চল হিসেবে গড়ে তুলতে চাই। যেখানে আমরা বন্ধুপ্রতীম প্রতিবেশীর মতই বসবাস করে আমাদের জনগণের জন্য গঠনমূলক নীতির বাস্তবায়ন করতে পারি। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সে স্বপ্নই দেখেছিলেন।

তিনি বলেন, দক্ষিণ এশীয় স্যাটেলাইট উৎক্ষেপনের মাধ্যমে বাংলাদেশ এবং ভারত তাদের পারস্পরিক সহযোগিতার ক্ষেত্রকে স্থল, জল এবং আকাশপথ ছাড়িয়ে মহাশূন্য পর্যন্ত বিস্তৃত করল।

তিনি আরো বলেন, আমি নিশ্চিত মহাশূন্যে এই সহযোগিতা আমাদের এই অঞ্চলের স্বার্থে আমাদেরকে প্রযুক্তিগত উন্নয়নের উচ্চাকাঙ্ক্ষীত পথে নিয়ে যাবে।

প্রধানমন্ত্রী আশা প্রকাশ করে বলেন, দক্ষিণ এশীয় স্যাটেলাইট এই অঞ্চলের দেশগুলোর মধ্যে পারস্পরিক সহযোগিতার এক নতুন দিগন্ত উন্মোচন করবে।

কনফারেন্সে আফগানিস্তানের প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ আশরাফ গণি, ভুটানের প্রধানমন্ত্রী থেসারিং তোবগে, মালদ্বীপের প্রেসিডেন্ট আব্দুল্লাহ ইয়ামিন আব্দুল গাইয়ুম, নেপালের প্রধানমন্ত্রী পুষ্প কমল দাহাল এবং শ্রীলংকার প্রেসিডেন্ট মৈত্রীপালা শ্রীসেনা বক্তব্য দেন।

ভিডিও কনফারেন্সের সময় গণভবনে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এএইচ মাহমুদ আলী, প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম, ডাক ও টেলিয়োগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিমসহ আমন্ত্রিত অতিথি এবং সরকারের পদস্থ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.