ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২১

৩২ হাজারেরও বেশি অভিবাসী স্বেচ্ছায় সৌদি ত্যাগ

১ min read

শ্রম আইন লঙ্ঘন করে সৌদি আরবে অবৈধভাবে বসবাসরত ৩২ হাজারেরও বেশি অভিবাসী স্বেচ্ছায় দেশটি ত্যাগ করেছেন। এছাড়া দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে লক্ষাধিক অবৈধ অভিবাসীকে আটক করা হয়েছে। তাদের শিগগিরই নিজ দেশে ফেরত পাঠানো হবে। স্থানীয় আল হায়াত পত্রিকার বরাতে এ খবর দিয়েছে সৌদি গ্যাজেট। ২৯শে মার্চ থেকে ‘ন্যাশন উইদাউট ইলিগাল এক্সপ্যাট্রিয়েটস’ প্রচারাভিযানের আওতায় অবৈধ অভিবাসীদের স্বেচ্ছায় শাস্তিবিহীনভাবে সৌদি আরব ত্যাগের সুযোগ দেয়া হয়। এই প্রচারাভিযানের প্রধান মেজর জেনারেল জামবান আল-ঘামদি বলেন, সকল সংস্থা এই প্রচারাভিযানে সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করছে। তার ভাষ্য, ‘আমরা প্রতিদিন আমাদের পরিকল্পনা পর্যালোচনা করি, যাতে এটি আরো সফল করা যায়। প্রচারাভিযান শুরুর এক মাসের মধ্যে আটককৃত আইন লঙ্ঘনকারী অভিবাসীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ লাখে।’
রিয়াদে এই প্রচারাভিযানের সহকারী তত্ত্বাবধায়ক কর্নেল সাফার বিন দলাইম অবৈধভাবে বসবাসরত সকল বাসিন্দাকে বিশেষ সুযোগ গ্রহণ করে কোনো জরিমানা ব্যতীত দেশত্যাগের আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি জোর দিয়ে বলেন, কোনো আইন লঙ্ঘনকারী যদি ৩ মাসের বিশেষ সময়সীমার পরও অবৈধভাবে বসবাস করেন, তাহলে তাকে নিজ দেশে ফেরত যাওয়ার আগে মোটা অংকের জরিমানা ও অন্যান্য শাস্তি পেতে হবে। তিনি বলেন, এই প্রচারাভিযানের উদ্দেশ্য হলো এটি নিশ্চিত করা যে, সৌদি আরবের সকল বাসিন্দাই বৈধ।
সৌদি গ্যাজেটের খবরে বলা হয়, ১৯টি সরকারি সংস্থা এ কার্যক্রমে জড়িত। ফলে দেশজুড়ে ৭৮টি পাসপোর্ট অফিসের কার্যক্রম ব্যাপকভাবে বেড়েছে। কর্মকর্তারা বলেন, যেসব অবৈধ অভিবাসী এ সময়সীমার মধ্যে দেশত্যাগ করবেন তাদের আঙুলের ছাপ নেয়া হবে না, বা কালো তালিকাভুক্ত করা হবে না। পরবর্তীতে তারা বৈধভাবে কাজ করতে সৌদি আরবে ফিরতে পারবেন।
সৌদি আরবে প্রায় ১০ লাখ মানুষ ভিসার সময় অতিক্রান্ত হওয়ার পরও বসবাস করছেন। এদের মধ্যে ২ লাখ ৮৫ হাজারই বেকার বিদেশি। চার বছর আগেও একই ধরনের প্রচারাভিযান শুরু করা হয়। ভারতীয় দূতাবাসের এক কর্মকর্তা জানান, ২০ হাজারেরও বেশি ভারতীয় এই সুযোগ গ্রহণ করে সৌদি আরব ত্যাগের জন্য নিবন্ধন করেছেন। এদের কেউ কেউ ১০ বছরেরও বেশি সময় ধরে অবৈধভাবে বসবাস করছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.