জুন ২৪, ২০২১

জগন্নাথপুরের পূর্বশত্রুতার জের ধরে সংঘর্ষে আহত ১০

১ min read

নতুন আলো নিউজ ডেস্ক :

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে পূর্বশত্রুতার জের ধরে উভয় পক্ষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও ইটপাটকেলের ঘটনায় অন্তত ১০জন আহত হয়েছেন । এর মধ্যে গুরুতর আহত অবস্থায় একজনকে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে । সংঘর্ষ চলাকালে গুলির শব্দে এলাকায় আতংকের সৃষ্টি হয়েছে । খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন । এ রিপোর্ট লিখা পর্যন্ত মামলা দায়েরের খবর পাওয়া যায়নি ।

 

 

 

 

প্রত্যক্ষদর্শী ও গ্রামবাসী সূত্রে জানা যায়, জগন্নাথপুর উপজেলার কলকলিয়া ইউনিয়নের কাদিপুর গ্রামে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে শুক্রবার সন্ধ্যায় গ্রামের মৃত আনোয়ার হোসেনের  ছেলে কামাল হোসেনকে পারারগাঁও ফুটবল টুর্নামেন্ট শেষে বাড়িতে যাওয়ার পথে সরকারী রাস্তায় একই গ্রামের মৃত আপ্তাব আলীর ছেলে সুজন মিয়া পক্ষের ধন মিয়ার নেতৃত্বে মারধোর করে তার ১০০ সিসি হিরো মোটর সাইকেলটি প্রেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয় । এ নিয়ে গ্রামের সুজন মিয়া ও রফিক মিয়া পক্ষের লোকজনের মধ্যে উত্তেজনা চলছিল ।

 

 

 

 

এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে গতকাল সকাল সাড়ে ৯টায় গ্রামের মিনার নামের আরেক লোককে সুজন মিয়া পক্ষের লোকজন মারধোর করে । এ ঘটনাটি গ্রামে ছড়িয়ে পড়লে উভয় পক্ষের লোকজন সজ্জিত হয় । এ সময় তাদের মধ্যে দু-ঘন্টাব্যাপী ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও ইট পাটকেলের ঘটনা ঘটে । এতে উভয় পক্ষের প্রায় ১০জন আহত হয় । এ সময় ফাঁকা গুলি বর্ষণের শব্দে এলাকায় আতংক ছড়িয়ে পড়ে এবং সাধারণ মানুষ দিকবেদিক ছুটাছুটি করতে থাকে । আহতদের মধ্যে রফিক মিয়ার ছেলে এমরান (২০), উমরজালার ছেলে মিনার (১৮) মৃত উসমান গনির ছেলে আ: সুবহান (৬৫) সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি ও প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে । বাকীদের নাম জানা সম্ভব হয়নি ।

 

 

 

 

এ ব্যাপারে স্থানীয় ইউপি সদস্য লিটন মিয়া, প্রত্যক্ষদর্শী আঃ সুবহান ও জইনুর মিয়া বলেন মোটর সাইকেল জ্বালিয়ে দেয়াকে কেন্দ্র করে তাদের মধ্যে উত্তেজনা চলছিল । শনিবার (২৭ মে) গ্রামের সুজন মিয়ার পক্ষের লোকজন মিনার নামের এক নিরিহ ছেলেকে মারধর করেছে এবং সংঘর্ষ চলাকালে সুজন মিয়ার লোকজন অবৈধ অস্ত্র ব্যবহার করে আতংকের সৃষ্টি করে । তাদের বাড়ী থেকে ২টি কার্তুজও উদ্ধার করা হয়েছে । জগন্নাথপুর থানার এস আই গোলাম মোস্তফা, এস আই কবির উদ্দিন জানান, গ্রামের দুটি পক্ষের মধ্যে পূর্ব থেকেই বিরোধ ছিল । পরিস্থিতি এখন শান্ত রয়েছে। শুনেছি গুলির শব্দ হয়েছে । এ বিষয়ে তদন্তক্রমে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.