অক্টোবর ৩০, ২০২০

রাজশাহী বিভাগে একাদশ সংসদ নির্বাচনে ৩৯ আসনে বিএনপির প্রার্থী ১০৬ জন

১ min read

নতুন আলো প্রতিনিধি : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে নেতাকর্মীদের চাঙা করতে ৩০০ আসনের প্রার্থীদের একটি খসড়া তালিকা করছে বিএনপি। ইতোমধ্যে নানা কৌশলে সম্ভাব্য প্রার্থীরা নির্বাচনের মাঠেও নেমে পড়েছেন। তাই সম্ভাব্য প্রার্থীদের নিয়ে ধারাবাহিক প্রতিবেদনের এ পর্বে থাকছে রাজশাহী বিভাগের প্রার্থী তালিকা। এই বিভাগের ৮ জেলার ৩৯টি সংসদীয় আসনের তালিকায় স্থান পেয়েছেন ১০৬ জন নেতা ।
রাজশাহী-১ (তানোর-গোদাগাড়ী): সাবেক মন্ত্রী ব্যারিস্টার আমিনুল হক, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অবসরপ্রাপ্ত সচিব জহুরুল ইসলাম, জেলা বিএনপির সাবেক যুববিষয়ক সম্পাদক সাজেদুর রহমান মারকনি ও যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী ক্যালিফোর্নিয়া বিএনপির যুগ্ম-সম্পাদক অধ্যাপক শাহাদৎ হোসেন শাহিন।
রাজশাহী-২ (রাসিক): সাবেক এমপি ও বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা মিজানুর রহমান মিনু এবং সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।
রাজশাহী-৩ (পবা-মোহনপুর): বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কবির হোসেন, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কামরুল মনির, বিভাগীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ শাহীন শওকত, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মতিউর রহমান মন্টু ও মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক শফিকুল হক মিলন।
রাজশাহী-৪ (বাগমারা): জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি সাবেক এমপি অধ্যাপক আব্দুল গফুর ও জেলা বিএনপির সভাপতি
তোফাজ্জল হোসেন তপু।
রাজশাহী-৫ (পুঠিয়া-দুর্গাপুর): সাবেক এমপি নাদিম মোস্তফা, সাবেক এমপি আবদুস ছাত্তার ম-ল, জেলার সহ-সভাপতি নজরুল ইসলাম ম-ল ও পুঠিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন জুম্মা।
রাজশাহী-৬ (বাঘা-চারঘাট): বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য ও চারঘাট উপজেলার চেয়ারম্যান আবু সাইদ চাঁদ, বাঘা উপজেলা বিএনপির সভাপতি নুরুজ্জামান খান মানিক ও জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি বজলুর রহমান।
নাটোর-১ (লালপুর ও বাগাতিপাড়া): বিএনপির সহ-দপ্তর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু ও জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি গোলাম মোস্তফা নয়ন, ছাত্রদলের সহ-সভাপতি তরিকুল ইসলাম টিটু।
নাটোর-২ (সদর): জেলা বিএনপির সভাপতি রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, তার স্ত্রী জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি সাবিনা ইয়াসমিন।
নাটোর-৩ (সিংড়া): জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি সাবেক এমপি কাজী গোলাম মোরশেদ ও সিংড়া পৌর বিএনপির সভাপতি শামিম আল রাজী।
নাটোর-৪ (গুরুদাসপুর ও বড়াইগ্রাম) : সাবেক এমপি ও জেলা বিএনপির সভাপতি মোজাম্মেল হক, সাধারণ সম্পাদক আমিনুল হক ও স্থানীয় নেতা আ. আজিজ।
পাবনা-১ (সাঁথিয়া-বেড়ার আংশিক): সাবেক এমপি মেজর (অব.) মঞ্জুর কাদের, স্থানীয় বিএনপি নেতা আব্দুল আজিজ ও তাঁতিদলের সহ-সভাপতি ইউনুস আলী।
পাবনা-২ (সুজানগর-বেড়ার আংশিক): সাবেক এমপি অ্যাডভোকেট এ কে এম সেলিম রেজা হাবিব, এ্যাবের মহাসচিব হাসান জাফির তুহিন ও পাবনা জেলা বিএনপির যুগ্ম-সম্পাদক আব্দুল হালীম সাজ্জাদ।
পাবনা-৩ (চাটমোহর, ভাঙ্গুড়া ও ফরিদপুর): রাজশাহী শিক্ষা বোডের সাবেক চেয়ারম্যান প্রফেসর বয়েন উদ্দীন মিয়া, সাবেক সাংসদ কে এম আনোয়ারুল ইসলাম ও বিমান বাহিনীর সাবেক প্রধান ফখরুল আযম।
পাবনা-৪ (ঈশ্বরদী-আটঘরিয়া): জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক এমপি সিরাজুল ইসলাম সরদার ও চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব।
পাবনা-৫ (সদর): একক প্রাথী বিএনপি চেয়ারপাসনের বিশেষ সহকারী অ্যাডভোকেট শামছুর রহমান শিমুল বিশ্বাস।
বগুড়া-১ (সারিয়াকান্দী ও সোনাতলা): বিএনপি নির্বাহী সদস্য ও বগুড়া জেলা বিএনপির উপদেষ্টা শোকরানা, সাবেক এমপি কাজী রফিকুল ইসলাম রফিক ও সোনাতলা উপজেলা বিএনপির সভাপতি জাকির হোসেন।
বগুড়া-২ (শিবগঞ্জ): বগুড়া জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক এম আর ইসলাম স্বাধীন ও বগুড়া জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক অধ্যক্ষ মীর শাহ আলম।
বগুড়া-৩ (আদমদিঘী-দুপচাঁচিয়া): বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল মোমিন তালুকদার খোকা।
বগুড়া-৪ (কাহালু-নন্দীগ্রাম): বগুড়া জেলা বিএনপির উপদেষ্টা ইঞ্জিনিয়ার মোস্তফা আলী মুকুল, জেলার সহ-সভাপতি অ্যাড. রাফি পান্না ও জেলার সদস্য মোশাররফ হোসেন।
বগুড়া-৫ (শেরপুর-ধুনট): বগুড়া জেলা বিএনপির উপদেষ্টা জানে আলম খোকা, ধুনট উপজেলা বিএনপির সভাপতি তৌহিদুল আলম মামুন ও সাবেক এমপি গোলাম মোহাম্মাদ সিরাজ।
বগুড়া-৬ (সদর): বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া।
বগুড়া-৭ (গাবতলী-শাহজাহানপুর): বিএনপি সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান, খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা হেলালুজ্জামান তালুকদার লালু ও গাবতলী উপজেলা বিএনপির সভাপতি আমিনুর রহমান তালুকদার।
জয়পুরহাট-১ (সদর ও পাঁচবিবি উপজেলা): সাবেক এমপি জেলা বিএনপির সভাপতি মোজাহার আলী প্রধান, সহ-সভাপতি ফজলুর রহমান ও স্থানীয় নেতা অধ্যক্ষ শামসুল হক।
জয়পুরহাট-২ (আক্কেলপুর, ক্ষেতলার ও কালাই): সাবেক এমপি জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি গোলাম মোস্তফা, যুগ্ম সম্পাদক আলী হাসান মুক্তা ও স্থানীয় নেতা আরিফ ইফতেখার আহমেদ।
চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১ (শিবগঞ্জ): বিএনপির একক প্রার্থী জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য অধ্যাপক শাহজাহান মিঞা।
চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ (নাচোল-গোমস্তাপুর-ভোলাহাট): ভোলাহাট উপজেলা বিএনপির সভাপতি আমিনুল ইসলাম ও সাবেক এমপি অ্যাডভোকেট আসিফা আশরাফী পাপিয়া।
চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩: একজন প্রার্থী বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব হারুনুর রশিদ।
নওগাঁ-১ (সাপাহার-পোরশা ও নিয়ামতপুর): সাবেক এমপি নিয়ামতপুর উপজেলা বিএনপির সভাপতি ডা. সালেক চৌধুরী, নওগাঁ জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমান ও সাপাহার উপজেলা বিএনপির সভাপতি মো. আব্দুর নুর।
নওগাঁ-২ (ধামইরহাট-পত্নীতলা): সাবেক এমপি বিএনপির কৃষিবিষয়ক সম্পাদক শামসুজ্জোহা খান।
নওগাঁ-৩ (মহাদেবপুর-বদলগাছী): সাবেক ডেপুটি স্পিকার ও বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা মো. আকতার হামিদ সিদ্দিকী ও বদলগাছী উপজেলা বিএনপি সভাপতি মো. ফজলে হুদা বাবুল।
নওগাঁ-৪ (মান্দা): সাবেক এমপি মান্দা উপজেলা বিএনপির সভাপতি মো. শামসুল আলম প্রামানিক, নওগাঁ জেলা বিএনপির যুগ্ন-সম্পাদক ডা. একরামুল বারী টিপু ও সহ-সভাপতি আলম চৌধুরী।
নওগাঁ-৫ (সদর): জেলা বিএনপির সভাপতি মো. নজমুল হক সনি ও সাধারণ সম্পাদক মো. জাহিদুল ইসলাম ধলু।
নওগাঁ-৬ (রাণীনগর-আত্রাই): বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কর্র্নেল (অব.) আব্দুল লতিফ খান ও মো. আনোয়ার হোসেন বুলু।
সিরাজগঞ্জ-১ (কাজীপুর ও সিরাজগঞ্জ সদরের একাংশ): উপজেলা বিএনপির সভাপতি সেলিম রেজা তালুকদার, জেলা বিএনপির সভাপতি নাজমুল হাসান তালুকদার রানা, সদস্য টি এম তহ্জিবুল এনাম তুষার ও কণ্ঠশিল্পী কনকচাঁপা।
সিরাজগঞ্জ-২ (সদরের একাংশ ও কামারখন্দ): দলের ভাইস চেয়ারম্যান ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু। কোনো কারণে তিনি নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করলে তার সহধর্মিণী ও জেলা বিএনপির সভাপতি রুমানা মাহমুদ।
সিরাজগঞ্জ-৩ (রায়গঞ্জ-তাড়াশ): সাবেক এমপি আব্দুল মান্নান তালুকদার, বিএনপি নেতা সাইফুল ইসলাম শিশির, তাড়াশ উপজেলা বিএনপি নেতা খন্দকার সেলিম জাহাঙ্গীর, উপজেলা চেয়ারম্যান আইনুল হক ও ঢাকা আইনজীবী ফোরামের নেতা অ্যাড. গোলাম মোস্তফা।
সিরাজগঞ্জ-৪ (উল্লাপাড়া): সাবেক এমপি এম আকবর আলী, উপজেলা বিএনপির আহবায়ক কাজী কামাল, নারী নেত্রী অ্যাড. সিমকী ইমাম, যুবদলের সদস্য আব্দুল ওয়াহাব, উপজেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. শামসুল ইসলাম, উপজেলা বিএনপির উপদেষ্টা কে এম শরফউদ্দিন মঞ্জু ও থানা বিএনপির সভাপতি মতিয়ার রহমান সরকার।
সিরাজগঞ্জ-৫ (বেলকুচি ও চৌহালী): দলের সহ-প্রচার বিষয়ক সম্পাদক আমিরুল ইসলাম খান আলীম, জেলা বিএনপির সদস্য রাকিবুল করিম পাপ্পু, সাবেক প্রতিমন্ত্রী মেজর (অব.) মঞ্জুর কাদের ও চৌহালী উপজেলা চেয়ারম্যান মেজর (অব.) মামুন।
সিরাজগঞ্জ-৬ (শাহজাদপুর): সাবেক উপ-প্রধানমন্ত্রী প্রয়াত ডা. এম এ মতিনের ছেলে ডা. এম এ মুহিত, সাবেক এমপি কামরুদ্দিন এহিয়া খান মজলিশ ও স্বেচ্ছাসেবক দলের সহ-সভাপতি গোলাম সরোয়ার।
সৃত্র: যায়যায়দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.