অক্টোবর ২৯, ২০২০

আমার কিছু হলে এর দায়দায়িত্ব ওসমান পরিবারের : শ্যামল কান্তি

১ min read

নতুন আলো নিউজ ডেস্ক :এমপি সেলিম ওসমান কর্তৃক লাঞ্ছনার শিকার নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলার পিয়ার সাত্তার লতিফ উচ্চ বিদ্যালয়ের আলোচিত প্রধান শিক্ষক শ্যামল কান্তি ভক্ত বলেছেন, ‘গত ১ এপ্রিল থেকে আমার নিরাপত্তা প্রত্যাহার করা হয়েছে। বর্তমানে আমি চরম নিরাপত্তাহীনতার মধ্যে আছি। কখন কী ঘটে বলতে পারছি না। যদি কিছু ঘটে যায় তাহলে আপনারা মনে রাখবেন ওসমান পরিবার থেকে হয়েছে। আমি আমার জীবনের নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কিত-ভীত।’

বুধবার বিকেলে নারায়ণগঞ্জ কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে জামিনে মুক্তি পাওয়ার পর এসব কথা বলেন তিনি। এ সময় কারাফটকে উপস্থিত ছিলেন শ্যামল কান্তির স্ত্রী সবিতা রানী হালদার, তার আইনজীবী সাখাওয়াত হোসেন খান, অ্যাডভোকেট আল আমিন সিদ্দিকীসহ অন্যরা।

এর আগে শিক্ষক শ্যামল কান্তি ভক্তকে আগামী ২০ জুলাই পর্যন্ত অন্তর্বর্তীকালীন জামিন দিয়েছেন আদালত।

একটি ঘুষের মামলায় গত ২৪ মে থেকে কারাবন্দি ছিলেন তিনি। বুধবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ সৈয়দ এনায়েত হোসেনের আদালতে শুনানি শেষে তার জামিন মঞ্জুর করা হয়।

জামিন শুনানি শেষে শ্যামল কান্তি ভক্তের আইনজীবী সাখাওয়াত হোসেন খান জানান, আদালত উভয় পক্ষের নথিপত্র যাচাই-বাছাই ও যুক্তি শুনে শ্যামল কান্তি ভক্তকে আগামী ২০ জুলাই পর্যন্ত অন্তর্বর্তীকালীন জামিন মঞ্জুর করেছেন।

প্রসঙ্গত, গত বছরের ১৩ মে শ্যামল কান্তি ভক্তকে এমপি সেলিম ওসমান কর্তৃক কান ধরে উঠবোস করানোর ঘটনার দু’মাস পর ১৪ জুলাই এমপিওভুক্ত করে দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে শিক্ষক শ্যামল কান্তি ভক্ত স্কুলের ইংরেজি শিক্ষক মোর্শেদা বেগমের কাছ থেকে ১ লাখ ৩৫ হাজার টাকা ঘুষ নেওয়ার অভিযোগে মামলা হয়। ওই মামলায় গত ২৪ মে শ্যামল কান্তি ভক্তের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়। সেদিন শ্যামল কান্তি আদালতে আত্মসমর্পণ করলে তাকে কারাগারে পাঠান আদালত।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.