ডিসেম্বর ৫, ২০২০

পাহাড়ের কান্না শোনে না কেউ, তিন জেলায় খাদ্য-জ্বালানি সঙ্কটে মানবেতর জীবন

১ min read

নতুন আলো নিউজ ডেস্ক :দেশের তিনটি পার্বত্য জেলায় যে ব্যাপক ভুমিধসে দেড় শতাধিক মানুষের মৃত্যু হয়েছে, তাতে অনেক জায়গার যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ায় খাদ্য ও নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের সঙ্কট দেখা দিয়েছে। রাঙামাটি শহরের সাথে চার দিন ধরে বাকি দেশে সড়ক যোগাযোগ এখনো কার্যত বিচ্ছিন্ন। খবর বিবিসির। ফলে সেখানে খাদ্য, জ্বালানি তেল সহ নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রীর চরম সঙ্কট চলছে। রাঙামাটি শহরের বহু পেট্রোল পাম্প বন্ধ। কোনো কোনো জায়গায় তেলের দাম লিটারপ্রতি দুশ’ টাকা পর্যন্ত উঠেছে। একজন বলছিলেন, ‘অনেক পাম্প থেকেই অল্প অল্প করে জ্বালানি তেল বিক্রি করা হচ্ছে। বাইকের জন্য এক লিটার, সিএনজির জন্য দু- তিন লিটারের বেশি বিক্রি করা হচ্ছে না।’ স্থানীয়রা বলছেন, বাজারে ইতোমধ্যে অনেক জিনিসের দাম বেড়ে গেছে। একজন বলছিলেন, ‘এখানে কিচ্ছু নেই। একগাছা খড়ও নেই। কাল কাঁচামরিচের কেজি ছিল ৩০০ টাকা। আলুর কেচি ছিল ৬০ টাকা। মুসুরি ডালের কেজি ২০০ টাকা। সব কিছু ডবল।’ গত সপ্তাহের ভারী বর্ষণের সময় সেখানে প্রায় দেড়শোর বেশি মানুষ ভূমিধসে নিহত হয়। সড়ক যোগাযোগ পুনস্থাপন করার জন্য জোরেশোরে কাজ করছে সামরিক-বেসামরিক প্রশাসন। তবে কর্মকর্তারা বলছেন, ক্ষতির পরিমাণ বেশি হওয়ায় এ কাজে বেশ কিছুটা সময় লাগবে। অন্যদিকে পাহাড়ি এলাকায় ভূমিধসের মতো দুর্যোগ মোকাবেলা করার জন্য একটি মহাপরিকল্পনার কথা ভাবছে সরকার। এ সপ্তাহেই এ নিয়ে আন্তঃমন্ত্রণালয় একটি বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.