অক্টোবর ২৩, ২০২০

জগন্নাথপুরে কুশিয়ারা নদীর অব্যাহত ভাঙ্গনে রাস্তা,বাড়িঘর নদী ভাঙ্গনে বিলীন হয়ে যাচ্ছে

১ min read

জাবির চৌধুরী জগন্নাথপুর থেকে :কুশিয়ারা নদীর অব্যাহত ভাঙ্গনের ফলে জগন্নাথপুর উপজেলার রানীগঞ্জ ইউনিয়নের বাগময়না গ্রামের রানীগঞ্জ বাজার হতে হলিকোনা বাজারের এক মাত্র রাস্তাটি নদী ভাঙ্গনে বিলীন হয়ে যাচ্ছে।
সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, রানীগঞ্জ ইউনিয়নে বাগময়না গ্রামে রানীগঞ্জ বাজার হতে হলিকোনা বাজারে যাওয়ায় একমাত্র রাস্তা নদী ভাঙ্গনে বিলীন হয়ে যাচ্ছে। সাবেক চেয়ারম্যান মজলুল হকের বাড়ির সামনের রাস্তাটি হঠাৎ করে কুশিয়ারা নদীর পানি বেড়ে যাওয়ায় সড়কটি ভাঙ্গনের কবলে পড়ে। ইতিমধ্যে রাস্তার বেশ কিছু অংশ ভেঙ্গে গেছে। গুরুত্বপূর্ণ ওই রাস্তা বাগময়না গ্রামের প্রাথমিক বিদ্যালয়,উচ্চ বিদ্যালয়,মাদ্রাসা,কলেজের ছাত্র/ছাত্রীগন ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে। প্রতিদিন ওই রাস্তা দিয়ে শত শত যানবাহন ঝুঁকির মধ্যে চলাচল করে আসছিল। আজ সকাল থেকে আর কোন যানবাহন চলাচল করছেনা।
নদী ভাঙ্গনের কবলে পড়ে স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, রানীগঞ্জ বাজার হতে হলিকোনা বাজারের বাগময়না গ্রামের এ রাস্তা দিয়ে প্রতিদিন শিক্ষার্থীসহ হাজার মানুষ মারাত্মক ঝুঁকি নিয়ে চলাফেরা করে। বিষয়টি আমরা স্থানীয় প্রশাসন, জনপ্রতিনিধিদের অবহিত করেছি।কিন্তু কোন কাজে আসছে না।
সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মজলুল হক জানান, কুশিয়ারা নদীর ভাঙ্গন দ েই চলছে। আমার ৩টি বাড়িঘরসহ জমি-জমা নদী গর্ভে বিলীন হয়ে যাওয়ায় আরেকটি নতুন বাড়ি তৈরী করে বসবাস করে আসছি।
এলাকাবাসী আরো জানান,সড়কটি সম্পূর্ন বিলীন হয়ে পড়লে ঐ এলাকার জনসাধারন যাতায়াত সমস্যায় চরম দুর্ভোগে পড়ার আশংকা রয়েছে।
এদিকে, বিগত কয়েকদিনের টানা বৃষ্টিপাতে অব্যাহত থাকায় রানীগঞ্জ ইউনিয়ন ও পাইলগাঁও ইউনিয়নের কয়েকটি গ্রামে নদীর তীরবর্তী অসংখ্য বাড়িঘর এবং কয়েকটি গ্রাম পড়েছে হুমকির মুখে। এছাড়া নদীর পানি উপচে গিয়ে তীরবর্তী গ্রাম গুলোতে দেখা দিচ্ছে অকাল বন্যা।
প্রতিদিনই ভাঙ্গনের ভয়াবহ দৃশ্য হতবাক করে দিয়েছে। সেই সাথে অসহায় দরিদ্র পরিবারের করুন আর্তনাদে বিস্মিত করে তুলেছে। অবিলম্বে ভাঙ্গন প্রতিরোধে প্রদক্ষেপ গ্রহনের জন্য সরকারের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রনালয়ের সু-দৃষ্টি কামনা করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.