ডিসেম্বর ২, ২০২০

জগন্নাথপুর পৌরসভার কেশবপুরে বৈদ্যুতিক তার খুটিঁর বদলে গাছে,যেকোন সময় ঘটতে পারে প্রাণহানি

১ min read

মোঃ শাফি (জগন্নাথপুর থেকে) : সুনামগঞ্জের জেলার জগন্নাথপুর পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডে কেশবপুরের রাস্তায় রয়েছে ঝুঁকিপূর্ণ বিদ্যুৎ সংযোগ। আমাদের প্রতিনিধি জানান কেশবপুর বাজার সংলগ্ন ট্রান্সফরমার থেকে গ্রামের ভিতরের বৈদ্যুতিক সংযোগ খুবই ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। বৈদ্যুতিক খুঁটির পরিবর্তে বৈদ্যুতিক তার গাছের সাথে বেধে রাখা হয়েছে,যার ফলে যেকোন সময়ে ঘটে যেথে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা প্রাণহানি । ভাঙা খুটির সাথে রয়েছে অতি পুরনো তার বার বার ছিঁড়ে যাওয়া জীর্ণ খোলা তার যা প্রায়শই ছিঁড়ে পরে রস্তার পাশে কিংবা রাস্তার ওপরে, যার ফলে ঘটতে পারে প্রাননাশের ঘটনা।

রাস্তার পাশে গাছের সাথে বেধে রাখা বৈদ্যুতিক তারের নিচু দিয়ে প্রাণ হাতে নিয়ে যাতায়াত করেন অত্র গ্রামের যুবক,বৃদ্ধ,মহিলা, স্কুল কলেজের শিক্ষার্থী সহ কোমলমতি শিশুরা। কখন কি ঘটে সেই আতংক নিয়ে চলাফেরা করেন এলাকার বাসিন্দারা।

গ্রামবাসীর ভাষ্যমতে দু-এক দিন পর পর তার ছিঁড়ে পরলে বিদ্যুৎ অফিস থেকে লোকজন এসে তার জোড়া দিয়ে চলে যান পরে তা আবার ছিঁড়ে পরে যায়। এমনো হয় একদিনে একপ্রান্তে তার জোড়া দেওয়া হলে ঐদিনই লাইনের অন্য প্রান্তে তার ছিড়ে যায়, যার ফলে কোন ধরণের স্থায়ী সমাধান পাচ্ছেন না এলাকাবাসী, প্রায়ই এই জীর্ণ তার বিপর্যয় দেখা দিয়ে ট্রান্সফরমার এর ফিউজ চলে যায় জনসাধারণ কে রাত কাটাতে হয় অন্ধকারে।

এলাকাবাসীর প্রশ্ন কবে তারা বেরিয়ে আসবেন এই ভয়ংকর পরিবেশ থেকে ? কবে পাবেন নিরাপদ বিদ্যুৎ সংযোগ? পৌরসভার মেয়র, কমিশনার কারো নজরে আসছে না এই ভয়ংকর মরণ ফাঁদ এলাকাবাসী আক্ষেপের সুরে বলেন ভোটের সময় এলে জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত হওয়ার জন্য কত ধরনের প্রতিশ্রুতি দেন, কিন্তু জনপ্রতি নির্বাচিত হওয়ার পর তাহারা সেই প্রতিশ্রুতি ভুলে যান ।
এলাকাবাসীর দাবি ডিজিটাল এই বাংলাদেশে এমন বিদ্যুৎ ব্যবস্থা থেকে বেরিয়ে এসে কর্তৃপক্ষের কাছে সুন্দর বৈদ্যুতিক পরিবেশ চান ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.