অক্টোবর ৩০, ২০২০

ব্রিটেনে ড্রাইভাররা বেপরোয়া গাড়ী চালিয়ে কাউকে হত্যা করলে যাবজ্জীবন জেলদন্ড : নতুন আইন

নতুন আলো নিউজ ডেস্ক :: ড্রাইভিংয়ের সময় মোবাইল ফোন ব্যবহার, মদ্যপ অবস্থায় ও বেপরোয়া গতিতে গাড়ী চালিয়ে দুঘর্টনার সৃষ্টির বিরুদ্ধে কঠোর হচ্ছে বৃটিশ সরকার। এধরনের ড্রাইভিংয়ের কারনে কারো মৃত্যু হলে অভিযুক্ত ড্রাইভারকে যাবজ্জীবন জেলদন্ডের বিধান রাখছে কর্তৃপক্ষ।

বেপরোয়া গতিতে বা মদ্যপ অবস্থায় ড্রাইভিং এবং ড্রাইভিংয়ের সময় মোবাইল ফোন ব্যবহারের ফলে সৃষ্ট দুর্ঘটনায় কারো মৃত্যু হলে ওই ড্রাইভারের যাবজ্জীবন দন্ডের বিধান রেখে নতুন আইন করার পক্ষে মত দিয়েছেন হাজার হাজার মানুষ।

জাস্টিস মিনিষ্টার ডমিনিক র্যা ব বলেছেন, রোড এক্সিডেন্ট নিয়ন্ত্রণে আনার লক্ষ্যে প্রচলিত আইনকে পরিবর্তন এবং পরিবর্ধন করার জন্যে সরকার একটি পাবলিক কনসালটেশন করেছিল। তাতে বিপজ্জনক এবং বেপরোয়া ড্রাইভারদের শাস্তির বিধান কঠোর করার পক্ষে প্রায় ৯ হাজার সাবমিশন গ্রহণ করে সরকার।

বেপরোয়া এবং বিপজ্জনক ড্রাইভিংয়ের ভয়াবহতা এবং ভুক্তভোগিদের কষ্টের উপলব্ধি থেকেই সরকারও বিপজ্জনক ড্রাইভিংয়ের ক্ষেত্রে যাবজ্জীবন জেল দন্ডের বিধান নিয়ে আসার পরিকল্পনা করছে বলে জানান তিনি। জাস্টিস মিনিষ্ট্রি জানিয়েছে, পাবলিক কনসালটেশনে প্রায় ৯০ শতাংশ মানুষ নতুন এবং কঠোর আইনের পক্ষে মত দিয়েছে।

আর ৭০ শতাংশ মানুষ প্রচলিত আইনকে আরো শক্তিশালি করার পক্ষে মত দেন। সরকারের এই পরিকল্পনাকে স্বাগত জানিয়েছেন চ্যারিটি সংস্থা ব্রেইকের ডাইরেক্টর জ্যাশন ওয়াকফোর্ড। ব্রেইক রোড সেইফটি নিয়ে কাজ করে। জ্যাশনের মতে, গাড়ি দুর্ঘটনায় নিহতদের স্বজনদের জন্যে সরকারের নতুন পরিকল্পনা একটি বড় শান্তনা হবে।
সূত্র: ব্রিটবাংলা

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.