ডিসেম্বর ২, ২০২০

ছাতকের আরেক জঙ্গি কলকাতায় গ্রেফতার

১ min read

চান মিয়া, ছাতক (সুনামগঞ্জ):ছাতকে আরেক শীর্ষ জঙ্গিসহ ৩জনকে কলকাতা স্টেশনে গ্রেফতার করা হয়েছে। মঙ্গলবার ২১নভেম্বর সেদেশের এসটিএফ সদস্যরা তাদেরকে গ্রেফতার করে। তারা আল-কায়দা জঙ্গি ও সন্ত্রাসের সঙ্গে জড়িত বলে সন্দেহ করা হচ্ছে। বাংলাদেশের দু’জনের মধ্যে সুনামগঞ্জের ছাতকের দোলারবাজার ইউনিয়নের কাটাশলা গ্রামের মো. কলমদর আলীর পুত্র আব্দুস সামাদ ওরফে সামসেদ, রিয়াজুল ও মনোতোষ দে নামে উত্তর ২৪ পরগনার বসিরহাটের এক বাসিন্দা। ২১নভেম্বর প্রকাশিত ভারদের আনন্দবাজার পত্রিকায় এ তথ্য জানা গেছে। পত্রিকায় বলা হয়,
এসটিএফ কর্তা তথা কলকাতা পুলিশের ডেপুটি কমিশনার মুরলীধর শর্মা লালবাজারে মঙ্গলবার সাংবাদিক সম্মেলনে এ দিন জানান, ধৃতদের মধ্যে দু’জন বাংলাদেশের নাগরিক। তাদের নাম সামসেদ এবং রিয়াজুল। এই দু’জন ভারতে বেআইনিভাবে ঢুকে ছিল। গত এক-দেড় বছর তারা ভারতেই ছিল। ধৃতদের কোনও পাসপোর্ট বা ভিসা নেই। অন্য দিকে গ্রেফতার করা হয়েছে মনোতোষ দে নামে উত্তর ২৪ পরগনার বসিরহাটের এক বাসিন্দাকে। ধৃত মনোতোষ অস্ত্র সরবরাহকারী বলেই জানতে পেরেছে পুলিশ। তদন্তকারীদের অনুমান, সন্দেহভাজন জঙ্গিরা অস্ত্র কিনতে এসেছিল। ধৃতরা বিভিন্ন অস্ত্র কারবারির সঙ্গে যোগাযোগ রেখে চলছিল। মুরলীধর শর্মা জানান, দুর্গাপুজোর সময় সেন্ট্রাল আইবি জঙ্গিদের গতিবিধি সম্পর্কে তথ্য পাঠায় রাজ্য পুলিশের কাছে। গত ২০-২৫ দিন ধরে বিভিন্ন স্থানে তল্লাশি চালানো হচ্ছিল। শর্মা জানিয়েছেন, ধৃতদের কাছ থেকে আল কায়দা সংক্রান্ত বই ও লিফলেট পাওয়া গিয়েছে। বিস্ফোরক তৈরির বইও বাজেয়াপ্ত হয়েছে। আটক করা হয়েছে ল্যাপটপ, পেনড্রাইভ। মিলেছে ভুয়ো আধার কার্ড। প্রাথমিক ভাবে সামসেদ এবং রিয়াজুল বাংলাদেশের নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন আনসারুল্লা বাংলা টিমের (এবিটি) সদস্য বলে জানা গিয়েছে। এই এবিটির সঙ্গে যোগ রয়েছে আল কায়দার। এবিটিকে কাজে লাগিয়ে পশ্চিমবঙ্গে জাল ছড়াতে চাইছে আল কায়দা, মনে করছেন গোয়েন্দারা। দু’বছর আগে সে বাড়ি থেকে নিখোঁজ হয়। ঈদ পরবে ও সে বাড়িতে আসেনি বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে। ##

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.