নভেম্বর ২৬, ২০২০

হিরণ মিয়া একজন ন্যায় বিচারক ছিলেন : সিদ্দিক আহমদ

১ min read

জগন্নাথপুর প্রতিনিধি ::জগন্নাথপুর পৌরসভার প্রথম চেয়ারম্যান উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সেক্রেটারি ও একাধিকাবারের সভাপতি ইকড়ছই গ্রামের বাসিন্দা প্রয়াত হারুনুর রশিদ হিরণ মিয়ার ১৭তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত স্মরণসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা সিদ্দিক আহমদ বলেছেন, হিরণ মিয়া ছিলেন একজন ন্যায় বিচারক। যার কাছে গিয়ে মানুষজন ন্যায় বিচার পেত এবং ন্যায় বিচারে তিনি ছিলেন বদ্ধপরিকর। যাদের মৃত্যু মানুষজন চায়না তাঁদের মধ্যে একজন ছিলেন হারুনুর রশীদ হিরণ মিয়া। তাঁর মৃত্যু ছিল আমাদের জন্য অপ্রত্যাশিত। তিনি মরে গেলেও মানুষের মধ্যে বেঁচে আছেন তাঁর কর্মদক্ষতা ও সততায়।

তিনি আরও বলেন, হিরণ মিয়া ছিলেন আওয়ামী লীগের কঠিন সময়ের ধারক ও বাহক। তাঁর কথা আওয়ামী লীগ যতদিন পৃথিবীতে থাকবে ততদিন স্মরণ রাখবে। তিনি তাঁর ন্যায়পরায়ণতা নীতিতে অনড় ছিলেন। তাঁর আদর্শ লালন করে রাজনীতি করার আহ্বান জানান তিনি।

তিনি শনিবার সকালে উপজেলা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত স্মরণ সভা প্রয়াত হারুনুর রশিদ হিরণ মিয়ার স্মৃতি সংসদের সভাপতি শিক্ষক আলমগীর হোসেনের সভাপতিত্বে ও স্মৃতি সংসদের সাধারণ সম্পাদক শশী গোপের পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য জগন্নাথপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রিজু, সহ-সভাপতি আব্দুল কাইয়ুম মশাহিদ, যুগ্ম সম্পাদক লুৎফুর রহমান, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান বিজন কুমার দেব, প্রচার সম্পাদক হাজী আব্দুল জব্বার, পৌর আওয়ামী লীগ সভাপতি ডা. আব্দুল আহাদ, সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন ভূঁইয়া, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আপ্তাব উদ্দিন, উপজেলা কৃষি লীগ সভাপতি আফছর উদ্দিন ভূঁইয়া, জগন্নাথপুর পৌরসভার প্যানেল মেয়র পৌর কাউন্সিলর শফিকুল হক ।

সভার শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন স্মৃতি সংসদের সাবেক সভাপতি ও উপজেলা যুবলীগ সভাপতি কামাল উদ্দিন।

এছাড়া আরো বক্তব্য রাখেন উপজেলা শ্রমিক লীগের সাবেক সভাপতি নুরুল হক, জগন্নাথপুর বাজার তদারক কমিটির সাধারণ সম্পাদক জাহির উদ্দিন, উপজেলা আওয়ামী লীগ সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মুজিবুর রহমান মুজিব, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-প্রচার সম্পাদক উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ফিরোজ আলী, কলকলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক মিজানুর রহমান মিজান মাষ্টার, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আবু হোসেন লালন, মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী মিনা রানী পাল, সুফিয়া খাতুন সাথী, উপজেলা মৎস্য লীগের সাধারণ সম্পাদক ক্ষিতিশ দাস, আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল হাসিম, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহবায়ক লিটন আহমদ, উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি সাফরোজ ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক রুমেন আহমদ, সহ-সভাপতি আজমল হোসেন মিটু, সাংগঠনিক সম্পাদক ফরহাদ আহমদ, প্রচার সম্পাদক সজীব রায় দূর্জয়, জগন্নাথপুর ডিগ্রী কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতি রুহেল মিয়া, সাধারণ সম্পাদক তাহা আহমদ প্রমুখ।

সভার শুরুতে সদ্য প্রয়াত ঢাকা উত্তরার মেয়র আমিনুস হক ও প্রয়াত হারুনুর রশিদ হিরণ মিয়ার বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।#

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.