অক্টোবর ৩১, ২০২০

সুনামগঞ্জ জেলা আ’লীগের কমিটি আগামী ২ দিনের মধ্যেই যাচ্ছে দলীয় সভানেত্রীর হাতে

১ min read

সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি আগামী ২ দিনের মধ্যেই দলীয় সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে তুলে দেওয়া হতে পারে। জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক কমিটির বেশির ভাগ বিষয়েই ঐক্যমতে পৌঁছেছেন বলে দলীয় সূত্রে জানা গেছে।

জেলা আওয়ামী লীগের ২ সদস্যের কমিটি দিয়ে প্রায় দুই বছর পার হয়েছে। গত ২ মাস ধরে সভাপতি মতিউর রহমান, সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এম এনামুল কবির ইমন এবং কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদে হোসেন (সিলেট বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত) সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের লক্ষে দফায় দফায় বৈঠক করেছেন।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, ৭৫ সদস্যের পূর্ণাঙ্গ জেলা কমিটির বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মতিউর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার ইমন ঐক্যমতে পৌঁছেছেন। সহ-সভাপতি, সাংগঠনিক সম্পাদক এবং সদস্য পদে কয়েকজনের নাম নিয়ে দ্বিমত রয়েছে। আগামী ২ দিনের মধ্যে এই পদগুলোর বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিয়ে পূর্ণাঙ্গ কমিটি দলীয় সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে জমা দেবার বিষয়ে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক দুজনেই একমত হয়েছেন। এই দুই দিনের মধ্যে কোনও পদের বিষয়ে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক ঐক্যমতে না পৌঁছালেও দুই জনের অর্থাৎ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের প্রস্তাবিত দুই নাম দিয়েই সভানেত্রীর হাতে কমিটি দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন দায়িত্বশীলরা।

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মতিউর রহমান এ প্রসঙ্গে বলেন,‘কমিটির বিষয়ে জানতে হলে সাধারণ সম্পাদকের সঙ্গে কথা বলতে হবে, তাঁর কাছে সবকিছু বুঝিয়ে দিয়েছি আমি।’

সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এম এনামুল কবির ইমন বলেন,‘১৮-১৯ বছর পর সম্মেলন হয়েছে, জেলা কমিটিতে রাখার মতো কয়েকশ’ নেতা রয়েছেন। এরমধ্যে ৭৫ জন বের করা অনেক কঠিন কাজ। তবুও আমরা দু’জন মিলে ঐক্যমতের ভিত্তিতে একটি কমিটি তৈরি করেছি, আগামী ২ দিনের মধ্যে কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আহমেদ হোসেনের মাধ্যমে দলীয় সভানেত্রী ও সাধারণ সম্পাদকের হাতে তুলে দেওয়া হবে কমিটি।’

প্রসঙ্গত- সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগ প্রায় ২০ বছর কেটেছে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও সম্পাদক দিয়ে। এই দীর্ঘ সময়ে জেলার বেশিরভাগ উপজেলায়-ই সংগঠন ছিল দ্বিধাবিভক্ত। ২০ বছর পর ২০১৬ সালের ২৫ ফেব্রুয়ারি ঘটা করে সম্মেলন করে সভাপতি ও সম্পাদকের দুই পদ ঘোষণা হয়। সম্মেলনের প্রায় ১০ মাস পরই সভাপতি ও সম্পাদক দুজনেই উল্টোপথে হেঁটেছেন। দুজনের দুরত্ব ছিল অনেক বেশি। সম্প্রতি তাঁদের সম্পর্কের উন্নতি ঘটলেও যার যার ঘনিষ্টদের দায়িত্বশীল পদে রাখতে চাইছেন দুজনেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.