জানুয়ারি ১৬, ২০২১

জগন্নাথপুরের খামারখালে যুবকের মৃত্যু নিয়ে রহস্য

জগন্নাথপুর প্রতিনিধি  :জগন্নাথপুরউপজেলার কলকলিয়া ইউনিয়নের খামারখাল গ্রামের এক যুবকের মৃত্যু নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে । দুই হাত বাধা ও গলায় ফাঁস লাগানো অবস্হায় এই যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে জগন্নাথপুর থানা পুলিশ শুক্রবার সন্ধ্যায় ।
শনিবার সকালে ময়না তদন্তের জন্য লাশ সুনামগঞ্জ মর্গে পাঠিয়েছে জগন্নাথপুর থানা পুলিশ ।
পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান উপজেলার কলকলিয়া ইউনিয়নের খামারখাল গ্রামের মৃত আছকির আলীর ছেলে ও যুক্তরাজ্য স্বেচ্ছাসেব  দল নেতা আফজাল হোসেনের ছোট ভাই নাসির মিয়ার (২৩) লাশ তার নিজ কক্ষে তীরের সাথে গলায় ফাঁস লাগানো এবং তার দু হাত পিছনে বাধা অবস্থায় ঝুলে আছে দেখে স্হানীয় চেয়ারম্যান কে অবহিত করা হলে, পরে পুলিশ ঘটনাস্থল পরির্দশন করে যুবকের লাশ উদ্ধার করে ।
এলাকাবাসীর অভিযোগ দূর্বৃত্তরা হত্যা করে হয়তো গলায় ফাঁস লাগিয়েছে যাতে সবাই মনে করে এটা আত্মহত্যা । নাসিরের এই অস্বাভাবিক মৃত্যু নিয়ে এলাকার লোকজনের মধ্যে এক ধরনের আতঙ্ক ও চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে ।
নাসিরের আতীয় স্বজনরা জানান নাসির মিয়া কে তার নিজ শয়ন কক্ষে ঘরের তীরের সাথে দরি দিয়ে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্হায় দেখতে পান পরিবারের সদস্যরা এই সময় তার দু হাত গামছা দিয়ে বাধাঁ ছিল ।
কলকলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল হাশিম জানান খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখতে পাই পিছনে হাত বাধা তীরের সঙ্গে গলায় ফাঁস লাগানো, ঘরের সামনে দরজা লাগানো এবং পিছনের দরজা খুলা অবস্থায় । আমি জগন্নাথপুর থানা পুলিশ কে অবহিত করার পর , পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।
জগন্নাথপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি হারুনুর রশীদ জানান যুবকের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ মর্গে পাঠিয়েছি । তদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পরেই বুঝতে পারব মৃত্যুর কারণ ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.