অক্টোবর ২৬, ২০২০

শেষ পর্যন্ত জোট ভেঙে গেল , অনাস্থার মুখে মোদি সরকার!

নতুন আলো নিউজ ডেস্ক :ভারতে বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোট থেকে বেরিয়ে গেল তেলেগু দেশম পার্টি (টিডিপি)। অন্ধ্র প্রদেশের চন্দ্রবাবু নাইডু’র দল টিডিপি আগেই কেন্দ্রীয় সরকার থেকে সরে এসেছিল। কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা থেকে তাদের দু’জন মন্ত্রী ইস্তফা দিয়েছেন।

আজ শুক্রবার তারা এনডিএ জোট থেকে বেরিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেয়ায় নরেন্দ্র মোদি নেতৃত্বাধীন কেন্দ্রীয় সরকার বড় ধাক্কা খেল বলে মনে করা হচ্ছে।

অন্ধ্র প্রদেশকে বিশেষ ক্যাটাগরির রাজ্যের মর্যাদা না দেয়ার ফলে কেন্দ্রীয় সরকারের সঙ্গে টিডিপি’র এতদিন টানাপড়েন চলছিল। টিডিপি এমপিরা সংসদেও ওই ইস্যুতে একনাগাড়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছেন। কিন্তু বিজেপি বলছে, অন্ধ্র প্রদেশের যা পাওয়ার দরকার তা আগেই দেয়া হয়েছে।

অন্ধ্র প্রদেশের মন্ত্রী কে এস জওয়াহর বলেছেন, বিজেপি আমাদের ধোঁকা দিয়েছে। সংসদে আমরা অনাস্থা প্রস্তাব নিয়ে আসব। টিডিপি’র অভিযোগ, অন্ধ্রপ্রদেশের সঙ্গে ভালো ব্যবহার করছে না বিজেপি।

এদিকে, কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব পেশ করতে চলেছে ওয়াইএসআর কংগ্রেস পার্টি। তারাও অন্ধ্র প্রদেশের বিশেষ মর্যাদা চাচ্ছে। দলটি এ ব্যাপারে লোকসভার মহাসচিবকে চিঠিও দিয়েছে। সংসদে অনাস্থা প্রস্তাব গ্রাহ্য হতে কমপক্ষে ৫০ সদস্যের সমর্থন প্রয়োজন।

গতকাল বৃহস্পতিবার অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নাইডু বিধানসভায় বলেন, ‘যে দলই কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব পেশ করুক, প্রয়োজন হলে আমরা সেই প্রস্তাব সমর্থন করব।’

এদিকে, টিডিপিও এবার কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনতে চলায় জাতীয় রাজনৈতিক অঙ্গনে আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছে। কংগ্রেস, বামফ্রন্ট ও তৃণমূলের পক্ষ থেকে অনাস্থা প্রস্তাবকে সমর্থন করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

এ নিয়ে বিজেপি নেতা মুখতার আব্বাস নাকভি বলেছেন, দেখা যাবে সংসদে কোন দল কার সঙ্গে যায়। তিনি বলেন, প্রত্যেক রাজ্যের দাবি ও ইস্যু আছে। এ নিয়ে আমার কিছু বলা ঠিক নয়। নির্বাচনের আগে এরকম মহড়া দেয়া একটা প্রথায় পরিণত হয়েছে বলেও নাকভি মন্তব্য করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.