নভেম্বর ২৬, ২০২০

বিশ্বনাথে ব্যবসায়ী তাজ হত্যা: মা-ছেলে গ্রেপ্তার

১ min read

নতুন আলো নিউজ ডেস্ক :হত্যার ২৩ দিন পর পর সিলেটের বিশ্বনাথে ব্যবসায়ী তাজ উদ্দিনের হত্যাকারী সুমন আহমদকে (২৩) গ্রেপ্তার করেছে থানা পুলিশ। তাজ উদ্দিন হত্যার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে হত্যাকারী সুমনের মা ও উপজেলার লামাকাজী ইউপির মহিলা মেম্বার কাঞ্চনমালাকেও গ্রেপ্তার কর হয়েছে।
স্থানীয় সাংবাদিক ও পুলিশের কাছে তাজ উদ্দিনকে চাকু দিয়ে পর পর কয়েকটি আঘাত করে হত্যা করার সত্যতা স্বীকার করেছে ঘাতক সুমন।

শুক্রবার (০৫ এপ্রিল) বিকালে পুলিশ ঘাতক সুমনকে সাথে নিয়ে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত ছুরি উদ্ধারের জন্য অভিযানে গেলেও তা খুঁজে পাওয়া যায়নি।
হত্যার পূর্ব মুহুর্ত ও ইতিপূর্বে নিহত ব্যবসায়ী তাজ উদ্দিন একাধিক বার সুমনকে বলাৎকার করার চেষ্টা করেন, আর ওই ক্ষোভ থেকে সিলেট শহর থেকে ৬শত টাকা দামে ক্রয় করা ছুরি দিয়ে তাকে (তাজ) হত্যা করেছে বলে স্থানীয় সাংবাদিক ও পুলিশকে জানিয়েছে ঘাতক সুমন আহমদ। এদিকে ব্যবসায়ী তাজ উদ্দিনের হত্যাকারীকে গ্রেপ্তার করায় খুশিতে থানার ওসিকে মিষ্টিমুখ করান এলাকাবাসী।
হত্যার ঘটনায় মা-ছেলেকে গ্রেপ্তারের সত্যতা স্বীকার করে বিশ্বনাথ থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) মোহাম্মদ শামসুদ্দোহা পিপিএম বলেন- পুলিশের কাছে ব্যবসায়ী তাজ উদ্দিনকে হত্যার স্বীকারোক্তি দিয়েছে ঘাতক সুমন আহমদ। এঘটনার সাথে তার মা জড়িত থাকায় তাকে ও গ্রেপ্তার করা হয়েছে।
প্রসঙ্গত, সিলেট সদর উপজেলার ফহেতপুর গ্রামের মৃত আলা উদ্দিনের ছেলে তাজ উদ্দিন (৩০) বিশ্বনাথ থানাধীন এলাকার মাহতাবপুর মৎস্য আড়তের একজন ক্ষুদ্র পান দোকানদার ছিল। প্রতিদিনের মতো গত ১৩ মার্চ দুপুরে মৎস্য আড়ৎ বাজারে তার নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান যান।

পরদিন ১৪ মার্চ সকাল ১১টায় বিশ্বনাথের কেশবপুর গ্রামের সুরমা নদীর পশ্চিম পাড়ে আতাপুর ডর নামক স্থানে নীচু জায়গায় পানির পাশে শুকনাতে ক্ষতবিক্ষত পেট কাটা অবস্থায় তাজ উদ্দিনের লাশ পাওয়া যায়। খবর পেয়ে বিশ্বনাথ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তার লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করে। গত ১৬ মার্চ অজ্ঞাতনামা আসামি রেখে বিশ্বনাথ থানায় তাজ উদ্দিন হত্যা মামলা দায়ের করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.