অক্টোবর ২৩, ২০২০

জগন্নাথপুরে ইউপি চেয়ারম্যান ও সচিবের বিরুদ্ধে ভিজিডির তালিকা প্রণয়নে অনিয়ম ও সাক্ষর জালের অভিযোগ

১ min read

নাজমুল হাসান মিটু:জগন্নাথপুরে কলকলিয়া ইউনিয়নে হতদরিদ্র মানুষের মাঝে ভিজিডি এর চাল বিতরণ কার্যক্রমে সুবিধাভুগীদের তালিকা প্রনয়নে দুই ইউপি সদস্যকে সম্পৃক্ত না করে পরিষদের চেয়ারম্যান নিজের পছন্দের মানুষ দিয়ে তালিকা প্রনয়নের কাজ করার এবং সচিব ও চেয়ারম্যানের এর বিরুদ্ধে সাক্ষর জাল করে টাকা উত্তোলনের অভিযোগ এনে ইউপির মহিলা সদস্য হনুফা বেগম ও রশিকা বেগম পৃথকভাবে উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তার বরাবরে অভিযোগ দায়ের করেছেন।

সুত্রে জানা গেছে সুনামগঞ্জ জেলাধীন জগন্নাথপুর উপজেলার ১নং কলকলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ আব্দুল হাসিমের বিরুদ্ধে হতদরিদ্র মানুষের মাঝে ভিজিডি এর চাল বিতরণ কার্যক্রমে তালিকা প্রনয়নে অনিয়ম ও চেয়ারম্যান এবং সচিবের বিরুদ্ধে সাক্ষর জাল এর অভিযোগ এনে এই পরিষদের সংরক্ষিত ৭, ৮,ও ৯ নং ওয়ার্ড এর মহিলা সদস্য রশিকা বেগম ৮ অক্টোবর মঙ্গলবার জগন্নাথপুর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মাহফুজ আলম মাছুম বরাবরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

লিখিত অভিযোগ থেকে জানা যায় সরকারিভাবে জগন্নাথপুর উপজেলায় বরাদ্ধকৃত প্রতিটি ওয়ার্ডে হতদরিদ্র মানুষের মধ্যে ভিজিডি চাল এর বিতরণ করার তালিকা সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড সদস্যগন করার নিয়ম থাকলেও পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ আব্দুল হাশিম ৭,৮ ও ৯ নং ওয়ার্ড এর সংরক্ষিত মহিলা সদস্য হনুফা বেগম এবং সংরক্ষিত ৪,৫ ও ৬ নং ওয়ার্ড এর মহিলা সদস্য রশিকা বেগমকে জনপ্রতিনিধি হিসেবে সম্পৃক্ত না করে ২০১৯-২০ সালের নিমিত্তে তালিকা প্রণয়ন কাজ নিজের পছন্দের মানুষ দিয়ে করাচ্ছেন এবং এলজি এসপি -২ থেকে কোন বরাদ্ধ তাদেরকে দেয়া হয়নি। সাক্ষর নিয়ে বরাদ্দের টাকা উত্তোলন করে তিনি মনোনীত ব্যক্তি দিয়ে কাজ করিয়ে নেন। এতে তাদের ওয়ার্ডের দরিদ্র জনসাধারণ বঞ্চিত হওয়ার পাশাপাশি নির্বাচিত প্রতিনিধি হিসেবে তাদেরকে অবজ্ঞা করা হচ্ছে।

এছাড়াও সংরক্ষিত ৭,৮ ও ৯ নং ওয়ার্ড এর মহিলা সদস্য হনুফা বেগম অভিযোগ পত্রে আড়োও উল্লেখ করেছেন যে, ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ আব্দুল হাশিম ও ইউপি সচিব শামসুল ইসলাম মিলা তাহার (হনুফা বেগম) সাক্ষর জাল করে পরিষদের যৌথ একাউন্টের টাকা উত্তোলন করেছেন। বিদায় এই ব্যাপারে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহন করার জন্য সংশ্লিষ্ট বিভাগের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করছেন মহিলা সদস্যগন।
কলকলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ আব্দুল হাশিম বলেন, উনারা পরিষদের সদস্য হয়েও সর্বদা পরিষদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করায় তাদেরকে বাদ দিয়ে ভিজিডি এর চাল সুষ্ঠুভাবে বিতরণ করতে তালিকা করা হচ্ছে। বিষয়টি ইউনিয়ন পরিষদের সভায় সিদ্ধান্ত নিয়ে করা হয়েছে। এ প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন,কোন ব্যক্তির সাক্ষর জাল করার প্রশ্নই আসে না, এটা সাজানো নাটক। আমাকে হেয়-প্রতিপন্ন করার জন্য এসব করা হচ্ছে।

জগন্নাথপুর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা মাহফুজুল আলম মাছুম বলেন, কলকলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের দুই সদস্যর লিখিত অভিযোগ পেয়েছি বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.