মঙ্গল. সেপ্টে ২২, ২০২০

গতি দানব এবাদতের ৫ উইকেট,গর্ভিত বড়লেখাবাসী

১ min read

মনসুর আহমদ বড়লেখা প্রতিনিধি : মৌলভীবাজার জেলার প্রাকৃতিক স্বপ্নের নীলাভূমি বড়লেখার কৃতি সন্তান সিলেটের গর্ব এবাদত হোসেন চৌধরী জিবান বাংলাদেশে সফররত জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট দল মূল সিরিজের আগে একমাত্র প্রস্তুতি ম্যাচে বিসিবি একাদশের হয়ে ৯ওবার বল করে মাত্র ১৯রানে ৩ম্যডেন সহ ৫উইকেট নেয়ার কৃতিত্ব অর্জন করেন,তাকে নিয়ে অনেক আনন্দিত উল্লাসিত আজ বড়লেখাবাসী, হাজার হাজার তরুণদের মনে যায়গা করে নিয়েছেন এই তরুণ উদীয়মান গতি দাবন,খবরের কাগজ ফেইসবুক নিউজ ফিড ও এখন ইবাদতময়, গতকাল সাভারের বিকেএসপিতে জিম্বাবুয়ের ছুঁড়ে দেওয়া ১৭৯ রানের সহজ লক্ষ্যে খেলতে নেমেও শুরুতে থাক্কা খেলো
বিসিবি একাদশ।
এক উইকেট পতনের পর ক্রিজে রয়েছেন অধিনায়ক সৌম্যসরকার। ফাইল ছবি
ছোট লক্ষ্যে খেলতে নেমেও স্বাগতিকরা হারিয়ে
বসেছে একটি উইকেট। ২০ বলে একটি চারের সহায়তায় ১ রান করে রাউনআউট হয়ে সাজঘরে ফিরেছেন ওপেনার মিজানুর রহমান। তবে মিজান বিদায় নিলেও ক্রিজে রয়েছেন আরেক ওপেনার ফজলে মাহমুদ রাব্বি। ১৬ বলে ১ রান করে বর্তমানে ক্রিজে
রয়েছেন তিনি। তার সাথে ৪ রানে অপরাজিত রয়েছেন ওয়ান ডাউনে নামা অধিনায়ক সৌম্য সরকার। এই প্রতিবেদন লেখার সময় ৬ ওভার খেলে ১ উইকেট হারিয়ে বিসিবি একাদশের সংগ্রহ ১৫ রান।
Also Read – এবাদতের বোলিং তোপে ১৭৮ রানে অলআউট জিম্বাবুয়ে
এর আগে তরুণ পেসার এবাদত হোসেনের বোলিং তোপে ৪৫.২ ওভারে ১৭৮ রানেই গুটিয়ে যায় জিম্বাবুয়ে। এবাদত একাই শিকার
করেন পাঁচ উইকেট। শুরুতে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়লেও
প্রতিরোধ গড়ে তোলে দলকে সম্মানজনক সংগ্রহ এনে
দেওয়ায় অবদান রাখেন অধিনায়ক হ্যামিল্টন মাসাকাদজা। দলীয় ৪৭
রানে ৫ ব্যাটসম্যানকে হারানোর পর অলরাউন্ডার চিগুম্বুরাকে
নিয়ে শতক হাঁকানোর পাশাপাশি দৃঢ় প্রতিরোধ গড়ে তোলেন তিনি। যদিও দলীয় ৭ রানের ওপেনার ক্রেইগ আরভিনকে (১) সাজঘরে ফিরিয়ে উইকেট পতনের শুভসূচনা ঘটান পেসার এবাদাত হোসেন। দলীয় ১৫ রানে শিন উইলিয়ামসকে প্যাভিলিয়নের পথ দেখিয়ে তৃতীয় উইকেটটিও শিকার করেন তিনি। এর আগে তারকা
ক্রিকেটার ব্রেন্ডন টেলরকে সাজঘরের পথ দেখান ওয়ানডে
সিরিজের মূল স্কোয়াডে থাকা মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন। তার বলে এলবিডব্লিউ হয়ে টেলর সাজঘরে ফেরেন মাত্র ৬ রান করে। তিন ব্যাটসম্যানের বিদায়ের পর সিকান্দার রাজাকে নিয়ে প্রতিরোধের চেষ্টা করেন হ্যামিল্টন মাসাকাদজা। কিন্তু দলীয়
২৮ রানে সাজঘরে ফেরেন রাজাও। তাকে আউট করেন
জাতীয় পর্যায়ের ক্রিকেটে নতুন মুখ মোহর শেখ। দলীয়
৪৭ রানে পিটার মুরকে সাইফউদ্দিনের ক্যাচে পরিণত করেন ইমরান আলী। ৫ উইকেট হারানোর পর বিপর্যয়ের শঙ্কা দেখা
দিলেও এল্টন চিগুম্বুরাকে নিয়ে এখন দেখেশুনে খেলে
যান অধিনায়ক মাসাকাদজা।
তবে মাসাকাদজা ১০২ ও চিগুম্বুরা ৪৭ রান করে সাজঘরে ফেরার পর আবারও ব্যাটিং অর্ডার ধ্বসে পড়ে। শেষপর্যন্ত ৪৫.২ ওভার খেলে ১৭৮ রানেই অলআউট হয় সফরকারীরা। এবাদতের শিকার করা পাঁচ উইকেট ছাড়াও বড় অবদান রেখেছেন মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন। তিনি শিকার করেন তিনটি উইকেট।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.