এপ্রিল ১৫, ২০২১

সৈয়দ মোসাব্বির আহমদ-কে গ্রেফতারের যুক্তরাজ্য বিএনপির নিন্দা ও প্রতিবাদ

নিজস্ব প্রতিনিধি:সরকার অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনের পথ রুদ্ধ করার হীন উদ্দেশ্যেই জগন্নাথপুর উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ মোসাব্বির আহমদ ও কলকলি ইউনিয়ন ছাত্রদল নেতা আব্দুল কাদির কে পুলিশ দিয়ে অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করিয়েছে। আমরা এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।’

প্রতিবাদ জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন যুক্তরাজ্য বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কয়ছর এম আহমেদ, যুক্তরাজ্য বিএনপি নেতা এম এ কাদির,যুক্তরাজ্য বিএনপি নেতা মল্লিক হাসনু, মিছবাউজ্জামান সুহেল, যুক্তরাজ্য বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক সুজাতুর রাজা,যুক্তরাজ্য বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক জাহেদ আলী, যুক্তরাজ্য স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আবুল হোসেন,ওল্ডহ্যাম বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মওদুদ আহমেদ, যুক্তরাজ্য বিএনপির সাবেক প্রচার সম্পাদক ও বেডফোড বিএনপির সাধারণ সম্পাদক রাজু আহমেদ, যুক্তরাজ্য বিএনপির সাবেক সহ যুব বিষয়ক সম্পাদক ও বার্মিংহাম ওয়েস্ট মিডল্যান্ড বিএনপির সহসভাপতি জালাল উদ্দিন,ওল্ডহ্যাম বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গোলাম মৌওলা নিক্সন চৌধুরী,যুক্তরাজ্য বিএনপির সাবেক যুব বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল হামিদ খান হেভেন, যুক্তরাজ্য স্বেচ্ছাসেবক দলের সাংগঠনিক সম্পাদক ও বার্মিংহাম ওয়েস্ট মিডল্যান্ড বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক আওলাদ হোসেন, সোয়ানসী বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জয়নাল কোরেশী, কেমব্রিজ বিএনপির সভাপতি কামাল হোসেন, লিডস বিএনপির সভাপতি হাজী আংগুর মিয়া,সাধারণ সম্পাদক জহুরুল ইসলাম,যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাসুদ আহমেদ, যুক্তরাজ্য যুবদলের সহ সাংগঠনিক সম্পাদক জাহির মিয়া, বার্মিংহাম ওয়েস্ট মিডল্যান্ড বিএনপির সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল কবির, যুক্তরাজ্য স্বেচ্ছাসেবক দলের সহ সভাপতি কামাল মিয়া,তুরণ মিয়া, ব্রাইটন স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক ফরিদ মিয়া,যুক্তরাজ্য স্বেচ্ছাসেবক দলের সহ প্রচার সম্পাদক ঈদন আলী,  বার্মিংহাম ওয়েস্ট মিডল্যান্ড স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক রফিকুর রহমান রফুর, সদস্য সচিব মজনু মিয়া, যুক্তরাজ্য স্বেচ্ছাসেবক দলের সহ সাহিত্য ও পাঠাগার সম্পাদক সৈয়দ রুপন আলী,সাজু আহমেদ, পাপ্পু চৌধুরী, নর্থ ইস্ট বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মোছাদ্দিক আহমেদ, কভেনট্রী বিএনপির সভাপতি জামিউল ইসলাম জামিল,বিএনপি নেতা ওয়াহিদ মল্লিক, সৈয়দ জাবির আহমেদ, লিডস স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি মাছুম আহমেদ, বার্মিংহাম স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা সাব্বির আহমেদ, মিরন মিয়া মিলন ও আফরোজ আলী প্রমুখ ।

নেতৃবৃন্দ বলেন  সারাদেশে সশস্ত্র বাহিনী মোতায়েনের পরও পুলিশের অন্যায় গ্রেফতার অভিযান বন্ধ হচ্ছে না। ২০দলীয় জোট মনোনীত প্রার্থী কিংবা স্বতন্ত্র প্রার্থী কেউই নির্বাচনী তৎপরতা চালাতে পারছেন না। পুলিশ এবং আওয়ামী লীগের সন্ত্রাসীরা ঐক্যবদ্ধভাবে বিরোধী দল ও স্বতন্ত্র প্রার্থীদের নির্বাচনী কর্মকান্ডে বাধা দিচ্ছে। দেশবাসী আশা করেছিল সশস্ত্র বাহিনী মোতায়েনের পরে নির্বাচনের পরিবেশ সুষ্ঠু হবে। কিন্তু আজ সোমবার তাদের মোতায়েনের পরও পরিস্থিতির উন্নতি হয়নি। বরং পরিস্থিতির আরো অবনতি লক্ষ্য করা যাচ্ছে। এ অবস্থা বিরাজ করলে নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও অংশগ্রহণমূলক হওয়ার কোনো সম্ভাবনাই নেই। আগামী ৩০ ডিসেম্বরের জাতীয় সংসদ নির্বাচনও ২০১৪ সালের নির্বাচনের মতই একতরফা ব্যালট ডাকাতির প্রহসনের নির্বাচনে পরিণত হওয়ার আশঙ্কাই প্রবল হচ্ছে।

 

আমরা যুক্তরাজ্য থেকে জগন্নাথপুর উপজেলা বিএনপির সভাপতি আবু হোরায়ারা সাদ স্যার, উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ মোসাব্বির আহমদ, পাটলী ইউনিয়ন যুবদলের সাধারণ সম্পাদক রাসেল বক্স ও কলকলি ইউনিয়ন ছাত্রদল নেতা আব্দুল কাদির কে গ্রেফতারের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি এবং অভিলম্বে নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জান্নাচ্ছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.