1. bnp786@gmail.com : editor :
  2. sylwebbd@gmail.com : mit :
  3. zia394@yahoo.com : Nurul Alam : Nurul Alam
  4. mrafiquealien@gmail.com : Rafique Ali : Rafique Ali
  5. sharuarprees@gmail.com : Sharuar : Mdg Sharuar
  6. ruponali@yahoo.com : Shohidul Islam : Shohidul Islam
রবিবার, ০৩ জুলাই ২০২২, ০৮:৪৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
পাইলগাঁও ইউনিয়নের আশ্রয় কেন্দ্রে গুলিতে বিএনপির পক্ষ থেকে খাবার ও ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ কয়ছর আহমদ এর পক্ষে চিলাউড়া হলদিপুর ইউনিয়নের আশ্রয় কেন্দ্রে গুলিতে বিএনপির। খাবার ও ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ জগন্নাথপুরে তারেক রহমানের নির্দেশে পৌর শহরের বিভিন্ন আশ্রয় কেন্দ্রে খাবার ও ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ। সি‌লেট বানভা‌সি অসহায় বন‌্যার্ত মানু‌ষের পা‌শে সি‌লেট চট্টগ্রাম ফ্রেন্ড‌শীপ ফাউ‌ন্ডেশন। ব্যারিস্টার মোস্তাকিম রাজা চৌধুরী’র পক্ষ থেকে খাবার বিতরণ। সিসিক সাবেক মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরান এর মৃত্যুে বার্ষিকীতে দোয়া ও বিনম্র শ্রদ্ধা। জগন্নাথপুর বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে উপজেলা, পৌর বিএনপি ও অঙ্গ সহযোগি সংগঠন। নিখোঁজ বিএনপি নেতা এম ইলিয়াস আলীর সহকারী মইনুল হকের সাথে বিশ্বনাথ উপজেলা জাতীয়তাবাদী ফোরাম ইউকের সৌজন্য সাক্ষাৎ”। ব্রিটিশ রাণী’র পক্ষ থে‌কে সম্মাননা স্বরুপ OBE খেতাব লাভ কর‌লেন বৃহত্তর সি‌লেটের কৃতি সন্তান আব্দুল মুনিম। কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী রেজাউল করিম রিপনের বাংলাদেশ গমন উপলক্ষে বিদায়ী সংবর্ধনা

ডান হাতের দান বাম হাত যেন না জানে-মাওলানা শাহ আবদুস সাত্তার

  • আপডেটের সময় : বুধবার, ৮ এপ্রিল, ২০২০

লোক দেখানো ইবাদত-বন্দেগির কোনো মূল্য নেই,,লোক-দেখানো ইবাদত আল্লাহর সঙ্গে প্রতারণার শামিল।

লোক দেখানো ইবাদত-বন্দেগির কোনো মূল্য নেই
নতুন আলো অনলাইন ডেস্ক রিপোর্ট::  দুস্থ, নিঃস্ব, গরিব, এতিম, মিসকিন, আশ্রয়হীন, পঙ্গু, বস্তিবাসী, অন্ধ, অসহায়দের দুঃখ-কষ্ট মোচনে সাহায্য-সহযোগিতায় দান-খয়রাত ও সেবা-যত্ন করা অত্যন্ত সওয়াবের কাজ। দেখুন, আল্লাহতায়ালা পবিত্র কোরআনে কারিমে পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছেন, ‘তোমরা যে পর্যন্ত না নিজেদের প্রিয় বস্তু দান-খয়রাত করবে, সে পর্যন্ত কোনো সওয়াব পাবে না।’ এ ছাড়া আল্লাহপাক রাব্বুল আলামিন পবিত্র কোরআনে আরও বলেছেন, “যে বা যারা অঢেল ধন-সম্পদ, অর্থ সঞ্চয় করছে তারা যেন দুনিয়া ত্যাগ করার আগেই আল্লাহর নামে ‘ফি সাবিলিল্লাহ’ দান-খয়রাত করে যেতে থাকে।” শুধু তাই নয়, আমাদের মহানবী মুহাম্মদের (সা.) কাছে কেউ কিছু চাইলে তার কাছে যা থাকত তা-ই দান করে দিতেন। নিজে অসমর্থ হলে অন্য কারও কাছ থেকে ধারকর্জ করে হলেও দানপ্রার্থীকে দিয়ে দিতেন। শুধু তাই নয়; নিজের অতি প্রয়োজনকে তুচ্ছ মনে করে পরিবার-পরিজনসহ অভুক্ত রেখেও গরিব, এতিম, মিসকিন, অসহায়-অভাবী মানুষকে আহার করাতেন। আল্লাহর প্রিয় নবীর (সা.) দান-খয়রাত ছিল বিশ্বব্যাপী মানবতার সেবার এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত। আবু দাউদ শরিফে উল্লেখ আছে_ একবার হজরত রাসূলুল্লাহ (সা.) তার সাহাবিদের নিয়ে ওহুদ পাহাড়ের পাদদেশ দিয়ে অতিক্রম করছিলেন। পাহাড়টি দেখে হজরত রাসূলুল্লাহ (সা.) বললেন, আমার সামর্থ্য থাকলে গরিব-দুঃখী, এতিম, অভাবী, অসহায় মানুষকে এই পাহাড়সম স্বর্ণ দান করে দিতাম। আল্লাহর প্রিয় হাবিব মুহাম্মদের (সা.) এমনই ছিল দান-খয়রাতের আদর্শ। দান-খয়রাতের ফজিলত ও মরতবা সম্পর্কে পবিত্র কোরআন-হাদিসে অসংখ্য বর্ণনা রয়েছে। কোনো ব্যক্তি যদি নিতান্ত অভাবের তাড়নায় কারও কাছে চাইলে তাকে ধমক দেওয়া হলে অন্তরে চোট লাগে এবং কষ্ট পেয়ে চোখ দিয়ে দরদরিয়ে পানি ঝরে_ এমন কথা বা মন্তব্য থেকে বিরত থাকার জন্য সুস্পষ্টভাবে নিষেধ করা হয়েছে। আল্লাহতায়ালা পবিত্র কোরআনে কারিমে ইরশাদ করেছেন, তুমি দানপ্রার্থীকে ধমক দিও না। শুধু এ কথা বলেই আল্লাহতায়ালা ক্ষান্ত হননি। তিনি তার স্বীয় কালামে আবারও ঘোষণা করেছেন_ কোনো কিছু দানপ্রার্থীকে দান বা খয়রাত দেওয়া হোক বা না হোক কোনো প্রকার কষ্টদায়ক কথা বলার চেয়ে একটি মিষ্টি-মধুর কথা বলাই উত্তম। আল্লাহতায়ালার ওই বাণীতে স্পষ্টতই বোঝা যায়, অভাব-অভিযোগের তাড়নায় যারা এসেছে তারাও আমাদের মতো রক্ত-মাংসে গড়া মানুষ। তাদেরও ক্ষুধা রয়েছে, চাহিদা রয়েছে। এ জন্য মানুষের জন্য মানুষের অন্তর কাঁদা উচিত। মাত্র কিছুকালের এ দুনিয়ায় অর্থ-সম্পদের পাহাড় গড়ে কী লাভ? নিজের জন্য সামান্য কিছু রেখে পরের তরে বিলিয়ে দিয়ে পরকালীন জীবনে সুখ-শান্তি এবং নাজাতপ্রাপ্ত হন। এ সম্পর্কে আল্লাহতায়ালা পবিত্র কোরআনে আবারও ইরশাদ করেছেন_ ‘হে ইমানদারগণ, তোমরা কোনো দানগ্রহীতাকে কোনোরূপ খোঁটা বা কষ্ট দিয়ে তোমাদের দান-খয়রাত ও সাহায্য-সেবাকে বরবাদ করে দিও না।’ এখানে একটু বলা প্রয়োজন, ‘ডান হাতে দান করলে বাম হাতও যেন না জানে’_ এটি পবিত্র ইসলামেরই নির্দেশ। দানশীলতা মানব চরিত্রের মহৎ গুণ, যা মানুষের হৃদয়কে কৃপণতার অভিশাপ থেকে মুক্ত ও সতেজ রাখে। এ সম্পর্কে আল্লাহতায়ালা আরও বলেছেন, ‘যাদের মন-দিল কৃপণতা হতে মুক্ত, তারাই হবে সত্যিকার সাফল্যমণ্ডিত। উল্লেখ্য, দান-খয়রাতের ক্ষেত্রে সমাজের অনেকেই নিজেদের ব্যবহৃত অকেজো-অযোগ্য পুরনো জিনিসপত্র দান-খয়রাত করে নিজেদের দাতা হিসেবে নাম জাহিরের অপচেষ্টা চালায়। এতে সওয়াবপ্রাপ্ত হওয়া দূরের কথা, এতে দান-খয়রাত, সাহায্য-সেবার মর্যাদাকে ক্ষুণ্ন করা হয়। আল্লাহ প্রদত্ত ধন-সম্পদ অভাবী ও অসহায় মানুষের জন্য ব্যয়ের পাশাপাশি বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, হাসপাতালসহ জনকল্যাণমূলক কাজে সামর্থ্য অনুযায়ী খরচ অনেক সওয়াবের কাজ। এসব খাতে অর্থ-সম্পদ দানের মন-মানসিকতা গড়ে তোলা দরকার। সে জন্য আমাদের সর্বতোভাবে নিজেদের মানবতার সেবায় বাস্তবভিত্তিক কর্মসূচি হাতে নিতে হবে।

Comments are closed.

এই ধরণের আরো খবর

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস

সর্বমোট

আক্রান্ত
১,৯৭৮,৬৮৯
সুস্থ
১,৯০৮,২৯৭
মৃত্যু
২৯,১৬২
সূত্র: আইইডিসিআর

সর্বশেষ

আক্রান্ত
১,৯০২
সুস্থ
৩০৭
মৃত্যু
স্পন্সর: একতা হোস্ট
© All rights reserved © 2021 notunalonews24.com
Design and developed By Syl Service BD