1. bnp786@gmail.com : editor :
  2. sylwebbd@gmail.com : mit :
  3. zia394@yahoo.com : Nurul Alam : Nurul Alam
  4. mrafiquealien@gmail.com : Rafique Ali : Rafique Ali
  5. sharuarprees@gmail.com : Sharuar : Mdg Sharuar
  6. ruponali@yahoo.com : Shohidul Islam : Shohidul Islam
বুধবার, ২৫ মে ২০২২, ০৩:০৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
সিলেটে বন্যা কবলিতদের বিত্তবানদের সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়ার আহ্বান সিলেট চট্টগ্রা‌ম ফেন্ডশীপ ফাউন্ডেশনের । সিলেটে বন্যার্ত মানুষের মাঝে খাদ্য বিতরণ অব্যাহত রেখেছে সিলেট-চট্টগ্রাম ফেন্ডশীপ ফাউন্ডেশন। বন্ধুত্বের হাত বাড়িয়ে মানবতার সেবায় বন্যার্ত সিলেটবাসীর পাশে চট্টগ্রামবাসী । পানি বন্দি মানুষের মাঝে এড. গিয়াস উদ্দিনের পক্ষ থেকে শুকনো খাবার অব্যাহত সি‌লেট নগ‌রীর পা‌নি ব‌ন্ধি অসহায় মান‌ুষের পা‌শে সি‌সিক এর ভারপ্রাপ্ত মেয়র তৌ‌ফিক বক্স লিপন এর খাদ‌্য সামগ্রী বিবরণ । তেঁতুলিয়ায় বিষপানে ২৫ বছরের যুবকের আত্মহত্যা। পানি বন্দি মানুষের পাশে প্রিন্সিপাল শামীম ইকবাল। ইতালির জেনোভায়‌ প্রবাসীদের কনস্যুলেট সেবা প্রদান: আওয়ামী লীগের ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা জ্ঞাপন জালালাবাদ প্রবাসী কল্যাণ পরিষদে সহ-সভাপতি প‌দে র‌ফিকুল ইসলাম স‌জিব নির্বাচিত। সিলেট জেলা যুবদল, স্বেচ্ছাসেবকদল ও ছাত্রদল ইউনিট এর ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত।

জগন্নাথপুরের মেয়ে দক্ষিণ সুরমার গৃহবধু’র রহস্যজনক মৃত্যুর ঘটনায় স্বামী গ্রেফতার

  • আপডেটের সময় : শুক্রবার, ১৫ মে, ২০২০

বিশেষ প্রতিবেদক::

জগন্নাথপুর পৌর শহরের মেয়ে দক্ষিণ সুরমা উপজেলার লালা বাজার ইউনিয়নের শাহসিকন্দর গ্রামের গৃহবধু লাকী রানী নাথের রহস্যজনক মৃত্যুর ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের দেড় মাস পর ওই গৃহবধুর স্বামী মামলার প্রধান আসামী অমরেশ দেব নাথ(অমর)কে পুলিশ গ্রেফতার করেছে।

 

আজ বৃহস্পতিবার(১৪ মে) সকাল ৯টায় মামলার তদন্তকারী কর্মকতা এস আই লিটন দত্ত শাহসিকন্দর গ্রামে অভিযান চালিয়ে অমরেশ কে তার নিজ বাড়ী থেকে গ্রেফতার করেছে। অমরেশ দেব নাথ(৩০) শাহসিকন্দর গ্রামের ধীরেন্দ্র দেব নাথের ছেলে।

 

সিলেট এসএমপির   দক্ষিণ সুরমা থানা পুলিশ জানান গ্রেফতারকৃত অমরেশ দেব নাথকে আজ দুপুরে আদালতে পাঠানো হয়। আদালত সূত্রে জানা যায়- আসামী অমরেশ জামিনের আবেদন করলে আদালত জামিন না মনজুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

 

 

সিলেটের দক্ষিণ সুরমা উপজেলার লালাবাজার ইউনিয়নের শাহসিকন্দর গ্রামে গত মাসের পহেলা এপ্রিল সকালে গৃহবধু লাকী রানী নাথ এর স্বামীর বাড়ীর বসত ঘরের দু-তলার শয়নকক্ষের সিঁড়ির পাশের একটি কক্ষ থেকে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে।

 

 

পৈষাচিক হৃদয় র্স্পশী চাঞ্চল্যকর রহস্যজনক এ মৃত্যুর ঘটনায় নিহত লাকী রাণী নাথ কেয়ার বড় ভাই সাংবাদিক বিপ্লব দেব নাথ বাদী হয়ে ৯ এপ্রিল (বৃহস্পতিবার ) এসএমপির দক্ষিণ সুরমা থানায় নিহত গৃহবধুর স্বামী অমরেশ দেবনাথ অমরকে প্রধান আসামী করে ৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।

 

 

মামলার অন্যান্য আসামীরা হচ্ছে:

নিহত গৃহবধুর স্বামী প্রধান আসামী অমরেশ দেব নাথের বাবা ধীরেন্দ্র দেব নাথ ধীরু তার মা শেফালী রাণী নাথ, বড়ভাই নিতাই দেব নাথ ও তার স্ত্রী শিল্পী রাণী নাথ, বড় বোন মনষা রাণী নাথ ও তার স্বামী বালাগঞ্জ উপজেলার চানঁপুর গ্রামের মুন্টু দেব নাথ এবং অমরেশ দেবনাথের প্রেমিকা জকিগঞ্জ উপজেলার কালিগঞ্জ গ্রামের মৃত: নিখিল দেব নাথের মেয়ে লিপি রাণী নাথ।

 

 

সেদিনের ঘটনা:

দক্ষিণ সুরমা উপজেলার শাহ সিকন্দর গ্রামের ধীরেন্দ্র দেবনাথের ছেলে অমরেশ দেবনাথ অমরের স্ত্রী লাকী রাণী নাথ কেয়ার রহস্যজনক মৃত্যুর খবর পেয়ে নিহত লাকীর পিতা সুনামগঞ্জ জেলার জগন্নাথপুর পৌর শহরের ৬নং ওয়ার্ডের মন্দির বাড়ির বাসিন্দা নবেশ দেবনাথ তার ছেলে সাংবাদিক বিপ্লব দেবনাথ সহ পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা এবং জগন্নাথপুর পৌরসভার সংরক্ষিত ওয়ার্ডের মহিলা কাউন্সিলার মীনা রাণী পাল সহ স্বজনরা শাহসিকন্দর গ্রামে নিহত লাকীর স্বামীর বাড়ি শাহসিকন্দর গ্রামে পৌছেন।

 

ঘাতক অমরেশ দেবনাথের দোতলা বাড়ির আঙ্গিনায় পুলিশ সহ স্থানীয়রা উপস্থিত ছিলেন। দুপুরের দিকে ঘাতক অমরেশ দেবনাথের ঘরের দোতলার শয়নকক্ষের উত্তর পাশের একটি কক্ষ থেকে সিলিং ফ্যানের একটির পাখার সাথে পুরনো শাড়ি কাপড় দ্বারা গলায় ফাস লাগানো অবস্থায় নিহত গৃহবধু লাকী রাণী নাথ কেয়ার লাশ পুলিশ উদ্ধার করেন। পরে সুরতহাল রিপোর্ট শেষে লাশ ময়না তদন্তের জন্য সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়।

 

 

এদিকে প্রত্যক্ষদর্শী এবং উপস্থিত তিনজন গনমাধ্যমকর্মী নিহত গৃহবধু লাকীর ঝুলন্ত দেহ এবং কক্ষের পারিপার্শিক অবস্থান মূভি ক্যামেরা এবং মোবাইল ফোনে ধারণ করেন। লাশের পা দুটি হাটু মোড়ানো অবস্থায় বিছানার সাথে লাগানো ছিল। এছাড়াও কক্ষটির উত্তর পাশের দেয়ালে ছোট পর্দা লাগানো অনুমান দুই ফুট পরিমাপের খোলা জানালা রয়েছে।

 

গৃহবধুর ঝুলন্ত লাশ এবং কক্ষটির পারিপার্শিক অবস্থানে ধারণা করা হয় গৃহবধু লাকী রাণী নাথ কেয়াকে নিষ্টুর ও নির্মম কায়দায় হত্যা করে ঘটনাটিকে আত্মহত্যায় চালিয়ে নিতে ঘাতকরা গৃহবধুর দেহ ঝুলিয়ে রেখেছে। তদন্তে চাঞ্চল্যকর এ হত্যা কান্ডের রহস্য উদঘাটন হওয়ার আশা রাখছেন গৃহবধু লাকীর স্বজনরা।

 

 

নিহত গৃহবধু লাকীর স্বজনরা আরো জানান : ২০১৮ সালের ২৩ ফেব্রæয়ারী ধর্মীয় রীতি অনুয়ায়ী দক্ষিণ সুরমা উপজেলার শাহসিকন্দর গ্রামের ধীরেন্দ্র দেব নাথের ছেলে অমরেশ দেবনাথ অমরের সাথে জগন্নাথপুর উপজেলার পৌর শহরের ৬নং ওয়ার্ডের নবেশ দেব নাথের মেয়ে লাকী রাণী নাথ কেয়ার বিয়ে হয়।

 

বিয়ের প্রথম দিকে দাম্পত্য জীবন সুখের হলেও চার মাস পর থেকেই শুরু হয় পারিবারিক কলহ। এর পেছনে রয়েছে নিহত লাকীর পাষন্ড স্বামী অমরেশের বড় ভাই নিতাই দেব নাথের শ্যালিকা লিপি রাণী নাথের সাথে অমরেশের পূর্বের প্রেমের সম্পর্ক।

 

 

লিপি রাণী নাথ দোতলা বাড়ির নীচ তলায় বোন জামাই নিতাই দেবনাথের ঘরে বোনের সাথে থাকার সুবাধে আড়ালে- আবডালে প্রেম করে বসে অমরেশের সাথে। একসময় তা শারীরিক সম্পর্কে পৌছে । ঘটনাটি জানাজানি হলে নিতাই দেব নাথের স্ত্রী শিল্পী রাণী নাথ তার বোন লিপিকে অমরেশের সাথে বিয়ে দিতে নানা কৌশল এবং স্বামী নিতাই দেব নাথের পরিবারকে চাপ প্রয়োগ করে।

 

 

বিষয়টি এক পর্যায়ে ধামাচাপা দেয়া হয়। পরবর্তীতে অমরেশের বোন জামাই বালাগঞ্জের মন্টু দেব নাথ শ্যালক অমরেশ দেব নাথকে বিয়ে করাতে মেয়ে দেখতে থাকেন। অবশেষে লাকী রাণী নাথ কেয়ার সাথে অমরেশের বিয়ে হয়। এদিকে অমরেশ একই বাড়িতে প্রেমিকা সহ স্ত্রীকে নিয়ে বসবাস করছেন।

 

 

এ ফাঁকে প্রেমিকা লিপির সাথে অমরেশের শুরু হয় পরকিয়া। স্ত্রী লাকীর অগোচরে প্রেমিকা লিপির সাথে অমরেশ প্রায় সময় অনৈতিক কাজে লিপ্ত থাকার কথা ফাঁস হয়ে গেলে শুরু হয় স্বামী স্ত্রীর কলহ।

লাকীর স্বজনরা আরো জানান: অমরেশের পরকিয়ার সম্পর্কের ঘটনাটি বাধাঁ দেয়ার কারণে অমরেশ ও তার মা শেফালী রাণী নাথ এবং বৌদি শিল্পী রাণী নাথ এর সহযোগিতায় অসংখ্যবার নিহত গৃহবধু লাকীর রাণী নাথের ওপর অমানবিক অত্যাচার নির্যাতন চালানো হয়।

 

 

এসব অত্যাচার সহ্য করে গৃহবধু লাকী রাণী নাথ স্বামীর সংসারে একটু সুখের আশায় ঘর করতে থাকে। শেষ মেষ লাকীর গর্ভে জন্ম নেয় একটি ফুটফুটে ছেলে সন্তান। সবকিছুর পর সন্তানের মূখের দিকে চেয়ে স্বামী অমরেশের অত্যাচার সহ্য করে সংসার চালিয়ে যাচ্ছিল লাকী । অবশেষে পরকিয়া প্রেম বাধাঁ হয়ে দাড়ায় লাকীর সূখের সংসারে।

 

 

দশ মাসের পূত্র অভিজিৎ দেবনাথ অভিমুন্নের মা ডাকার স্বপ্নকে ভেঙ্গে তছনছ করে দিয়েছে পাষন্ড অমরেশ ও তার পরিবারের সহযোগিরা। গৃহবধু লাকী রাণী নাথ কেয়ার নিহত হওয়ার ঘটনাটি তার বাবা মা ভাই বোন এবং স্বজনরা সহ অনেকেই ধারণা করছেন এটি একটি নির্মম এবং নিষ্ঠুর হত্যাকান্ড।

 

 

এদিকে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এস আই লিটন দত্ত জানান মামলার প্রধান আসামী অমরেশ দেব নাথকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্যান্য আসামীদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

 

Comments are closed.

এই ধরণের আরো খবর

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস

সর্বমোট

আক্রান্ত
১,৯৫৩,২৯৮
সুস্থ
১,৯০১,৩৮৫
মৃত্যু
২৯,১৩০
সূত্র: আইইডিসিআর

সর্বশেষ

আক্রান্ত
৩৪
সুস্থ
২২৮
মৃত্যু
স্পন্সর: একতা হোস্ট
© All rights reserved © 2021 notunalonews24.com
Design and developed By Syl Service BD