এপ্রিল ১৬, ২০২১

বন ও পরিবেশ মন্ত্রির এলাকায় ব্রিজটি যেন মরন ফাঁদ

১ min read

বড়লেখা প্রতিনিধি::বড়লেখা উপজেলার সুজানগর ইউনিয়নের আমবাড়ি ভোলারকান্ধি বাঘমারা এবং সালদিগা গ্রামের যোগাযোগের একমাত্র ব্রিজটি এখন মরণ ফাঁদে পরিণত হয়েছে। ব্রিজের দুই পাশে মাটি ধসে পড়ে যাওয়াতে ব্রিজের বিভিন্ন জায়গাতে ফাটল দেখা দিয়েছে ৷ ফলে প্রতিনিয়ত ঘটছে ছোট-খাটো দূর্ঘটনা।
স্থানীয়দের অভিযোগ, কিছুদিন আগেও ব্রিজের মাঝখানে পলেস্তার খসে গিয়ে গর্তের সৃষ্টি হয়।প্রতিদিন যানবাহন সহ মানুষের যাতায়াতের কারনে ব্রিজের মাঝখানে আস্তর উঠে গিয়েছিল তা এলাকার জনসাধারন মাটি ভরাট সহ মেরামত করে থাকেন ৷ব্রিজটি নির্মানের পর থেকে আজ পর্যন্ত সরকারি ভাবে কোন ধরনের সাহায্য সহযোগিতা আসে নাই ৷এলাকাবাসির অভিযোগ ব্রিজটি নির্মানের কিছু দিন থেকেই বিপদজনক অবস্থায় রয়েছে কিন্তূ দেখার কেউ নাই অথচ কিছুদিন পর আবার ব্রিজের দুটি স্থানে পলেস্তার খসে গিয়ে গর্তের সৃষ্টি হয়েছে।ব্রিজের উভয় পাশে যে পিলার রয়েছে তা যেকোন সময় ভেংগে পড়ে যেতে পারে ৷ ভাংগা চুড়া ব্রিজটি অপসারণ করে নতুন ব্রিজ নির্মাণ অথবা মেরামতের জোর দাবি জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

জানা গেছে, উপজেলার সুজানগর ইউনিয়নের আজিম গন্জ বাজার হয়ে পশ্চিম দিগে সালদিগা গ্রামের ভিতর দিয়ে যে রাস্থা ভোলারকান্ধিতে গেছে সেখানে সংযোগ ব্রিজ হিসাবে আজ থেকে রাস্তার উপর প্রায় ৪০ বছর আগে স্থানীয় সরকার এই ব্রিজটি নির্মান করেন ৷ এ সড়কে সাধারনত জুড়ী উপজেলা,কুলাউড়া উপজেলা এবং বিয়ানিবাজার হয়ে সিলেটের সাথে সহজ যোগাযোগের মধ্যকার সংযোগ রাস্থাও বলা হয়ে থাকে ৷ ব্রিজটি নির্মানের পর থেকে যোগাযোগ ব্যবস্থা সুবিধা হওয়ায় প্রতিদিন বিভিন্ন স্কুল কলেজের ছাত্র-ছাত্রিসহ হাজার হাজার মানুষ যাতায়াত করে। এছাড়াও প্রতিনিয়ত চলাচল করে বাস ট্রাক অটোরিক্সাসহ কয়েকশ পণ্যবাহী যানবাহন। কিন্তু বর্তমানে ব্রিজটির এমন ভগ্নদশায় যানবাহনের যাত্রিসহ পথচারীরা চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন। ভাংগা ব্রিজে মানুষজন ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছেন।
স্থানীয় প্রবীন মুরব্বি জহুর উদ্দিন (দুলভ আলী) (৭০) বলেন, ভাংগাচুড়া ব্রিজটি দিয়ে লোকজন যাতায়াত করতে অসুবিধা হচ্ছে। প্রায় ছোটখাটো দূর্ঘটনায় পড়তে হচ্ছে মানুষজনকে। দ্রুত ব্রিজটি অপসারণ করে নুতুন ব্রিজ নির্মাণ অথবা মেরামত না করলে বড় ধরনের দুর্ঘটনার আশংকা রয়েছে।
এ বিষয়ে বড়লেখা উপজেলা চেয়ারম্যান সুয়েব আহমৈদ অবগত আছেন এবং উনি নিজে সরজমিনে ব্রিজের এই বেহাল দশা দেখে গেছেন ৷ উপজেলা চেয়ারম্যান মেরামতের আশ্বাস দিয়ে গেলেও এখনো কোন উদ্যোগ না নেওয়াতে এলাকাবাসি হতাশ ৷বন ও পরিবেশ মন্ত্রি সাহাব উদ্দিনের এলাকায় তাও আবার যেখানে উনার ভোট ব্যাংক আছে সেই এলাকার মানুষের রাস্থা ঘাট ব্রিজ কালবার্টের এমন করুন দশা সত্যিই অবাক হওয়ার বিষয় ৷এলাকাবাসি আশা করেন মন্ত্রির সদয় নজরে আসার পাশাপাশি উপজেলা চেয়ারম্যান এবং ইউনিয়ন চেয়ারম্যান সহ উপজেলা প্রকোশলী কর্মকতারা এই ব্যয়াপারে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব উদ্যোগ নিবেন তাতে যে কোন বড় ধরনের অঘটন থেকে রক্ষা মিলবে ৷

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.