সোম. সেপ্টে ২১, ২০২০

দোয়ারাবাজারে দোকানে দূর্ধর্ষ ডাকাতি, আটক ৫ ।  

১ min read

 

এম রেজা টুনু সুনামগন্জ প্রতিনিধি :: সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারে একটি দোকানে দূর্ধর্ষ ডাকাতি সংঘটিত হয়েছে।

এ ঘটনায় জড়িত ৫ জনকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে এলাকাবাসী।

আটককৃতরা হচ্ছে- উপজেলার বগুলা ইউনিয়নের বাগহানা গ্রামের মৃত জুলমত আলীর পুত্র সোহাগ মিয়া ও আইবুল মিয়া, একই ইউনিয়নের নোয়াডর গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা হোসেন মিয়ার পুত্র জুয়েল মিয়া, একই ইউনিয়নের বগুলা গ্রামের মৃত নিজাম উদ্দিনের পুত্র হারুন মিয়া এবং একই উপজেলার বাংলাবাজার ইউনিয়নের পুরান বাঁশতলা গ্রামের মৃত সিকান্দর আলীর পুত্র হারিছ আলী।

ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার ভোর সাড়ে ৪টার দিকে উপজেলার বগুলাবাজারের আরিফ টেলিকম সেন্টারে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, সোমবার সেহরির পর ভোর সাড়ে ৪টার দিকে ওই ডাকাত চক্রের সদস্যরা লোহার শাবল দিয়ে বগুলা বাজারের আরিফ টেলিকম সেন্টারের (দোকানের) সার্টার ভাঙ্গার চেষ্টাকালে বাজারের নৈশ প্রহরী আব্দুর রহিম তাদেরকে বাঁধা দেন। এ সময় তারা তাকে ডেগার উঁচিয়ে আটকে রেখে ভেতরে ঢুকে নগদ টাকা, এন্ড্রয়েড মোবাইল সেট ও বিভিন্ন সরঞ্জামাদিসহ কয়েক লক্ষ টাকার মালামাল নিয়ে পালিয়ে যায়।

এতে প্রায় ১৮ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে জানান দোকান মালিক আরিফ খান।

সকালে নৈশ প্রহরী আব্দুর রহিমের বর্ণনামতে দোকান মালিক আরিফ খান, বাজারের ব্যবসায়ীবৃন্দসহ এলাকাবাসী ডাকাতদের আটক করে থানায় ফোন দেন।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে আটককৃতদের থানায় নিয়ে আসেন।

আটককৃতরা মাদকদ্রব্যসহ নানা অপরাধমুলক কর্মকান্ডে জড়িত রয়েছে বলে এলাকার অনেকেই তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেন।

বগুলা বাজার ব্যবস্থাপনার সেক্রেটারী সিদ্দিকুর রহমান ঘটনাটি নিশ্চিত করে বলেন, ব্যবসা পরিচালনার ক্ষেত্রে বাজারের ব্যবসায়ীরা চরম নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছেন। ব্যবসায়িক নিশ্চয়তা প্রদানে আমরা প্রশাসনিক হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে দোয়ারাবাজার থানার ওসি আবুল হাশেম আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, তাদের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.