অক্টোবর ২৪, ২০২০

সুনামগঞ্জের ছাতকে জোর পূর্বক প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা, থানায় অভিযোগ দায়ের।

এম রেজা টুনু সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:
সুনামগঞ্জের ছাতকে দেবর ও ননদের স্বামী কর্তৃক ঘরে প্রবেশ করে জোরপূর্বক প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় গত মাসের ২৬ তারিখ থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ছাতকের ভাতগাঁও ইউনিয়নের পশ্চিম সুলেমানপুরের বাসিন্দা ভুক্তভোগীর স্বামী সুফি মিয়া দির্ঘদিন যাবৎ প্রবাসে থাকায় ননদের স্বামী মনির মিয়া (৩৫) ও দেবর মাসুক মিয়া (২২) বিভিন্ন ধরনের কু প্রস্তাব দিয়ে আসছিলেন। তাদের অতিষ্টে নিরাপত্তার জন্য তিনি পিতৃালয়ে চলে যান। প্রতিদিনের মত সেপ্টেম্বরের ২৪ তারিখ সেখানে আলাদা একটি কক্ষে তিনি ঘুমিয়ে পড়েন। হঠাৎ ঘুম ভাঙলে তিনি বুঝতে পারেন তার মুখে একজন চেপে ধরছে। তখন হাত সরানোর চেস্টা করলে মনির মিয়া এবং জোরপূর্বক ধর্ষণে চেষ্টায় বাঁধা দিলে মাসুক মিয়া কোনো ধরনের চিৎকার না করার জন্য বলে। একপর্যায়ে মুখ থেকে হাত সরে গেলে তিনি চিৎকার করেন। এবং ঘরের মানুষ এবং আশেপাশের মানুষ এগিয়ে এসে আলো জ¦ালালে তারা পালিয়ে যায়। পরে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়লে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নেন।
সূত্র জানায়, অভিযুক্ত মাসুক এলাকার চিহ্নিত অপরাধী ও কয়েকটি ডাকাতি মামলার আসামী।
এসময় ভোক্তভুগী জানান, ছাতক থানার তখনকার ভারপ্রাপ্ত অফিসার ইনচার্জের দায়িত্বে থাকা ওসি (অপারেশন) মিজানুর রহমান অভিযোগ পেয়ে ঘটনাটি আপোষে মিমাংসা করার প্রস্তাব দেন। কিন্তু এখন পর্যন্ত অভিযোগের প্রেক্ষিতে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন না করায় অভিযোক্তরা বিভিন্নভাবে প্রাণনাশের হুমকি প্রদান করছে। এবং তাদের ভয়ে তিনি বাড়িঘর ছেড়ে আত্মীয় এক মামার বাসায় আশ্রয় নিয়েছেন বলেও জানান ভুক্তভোগী প্রবাসরি স্ত্রী।
এব্যাপারে মিজানুর রহমানের বক্তব্য নিতে চাইলে মুঠো ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।

এব্যাপারে ছাতক থানার বর্তমান অফিসার ইনচার্জ নাজিম উদ্দিন জানান, আমরা অভিযোগ পেয়েছি। এটি এখনও তদন্তাধীন রয়েছে। এবং কেউ কারো প্রতি চাপ প্রয়োগের প্রশ্ন আসে না। এছাড়া অতিদ্রুত এই ঘটনার তদন্ত শেষ করে যতাযত আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.