মে ১২, ২০২১

সিলেটের খাদিমনগর খাদ্য গুদামে কৃষকের ধান বিক্রয়ের আবেদনের শেষ তারিখ ২০ নভেম্বর  

১ min read

সৈয়দ মুহিবুর রহমান মিছলু:সদর উপজেলার খাদিমনগর খাদ্য গুদামে মোবাইল অ্যাপ-এর মাধ্যমে কৃষকের নিবন্ধন ও ধান বিক্রির আবেদনের শেষ তারিখ ২০ নভেম্বর রবিবার পর্যন্ত ধার্য্য করা হয়েছে। এবারই প্রথম ‘কৃষকের অ্যাপ’ মোবাইল অ্যাপ-এর মাধ্যমে সিলেটের সরকারি খাদিমনগর খাদ্য গুদামে প্রতি মন আমন ধান -১০৪০/= টাকা করে প্রত্যেক কৃষক বিক্রয় করতে পারবেন।
কৃষক নিবন্ধনের জন্য জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর এবং মোবাইল নম্বর প্রয়োজন হবে। কৃষক অ্যাপ-এর সুবিধা হল ১) নিবন্ধন, বিক্রয়ের আবেদন, বরাদ্দ আদেশ এবং মূল্য পরিশোধের সনদ সম্পর্কিত তথ্য এসএমএস-এর মাধ্যমে পাওয়া যাবে। ২) সময়, খরচ, হয়ারনি ভোগান্তি কমবে। ৩)
মধ্যস্বত্বভোগীদের দৌরাত্ব থাকবে না। ৪) নিবন্ধন ও আবেদন সম্পন্ন হওয়ার পর কম্পিউটারের মাধ্যমে স্বয়ংক্রিয়ভাবে লটারী করা হবে। নতুন কৃষক নিবন্ধন করলেই তার ধান বিক্রয়ের আবেদন স্বয়ক্রিয়ভাবে হয়ে যাবে। তবে নিবন্ধনকৃত পুরাতন কৃষকদের শুধুমাত্র ধান বিক্রয়ের আবেদন করতে হবে। কৃষক নিবন্ধনের জন্য উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা সিলেট সদর, পৌরসভা/ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারের উদ্যোক্তা, খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা খাদিমনগর সিলেট সদর, উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক সিলেট সদর ও জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক সিলেট এ যোগাযোগ করতে হবে।
প্রত্যেক কৃষককে মোবাইল ফোন Google ply Store থেকে Krishoker App করতে হবে। তখন সহজেই কৃষক নিবন্ধন হয়ে যাবে। সরকারের কাছে ধান বিক্রয়ের জন্য সর্বস্তরের কৃষকদেরকে মোবাইল অ্যাপ-এর মাধ্যমে কৃষক নিবন্ধনের জন্য সিলেট জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক মনোজ কান্তি দাস চৌধুরী বিশেষ ভাবে অনুরোধ জানিয়েছেন।

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.