মে ১১, ২০২১

তাহিরপুর উপজেলার উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়ন কৃষকলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত

১ min read

এম রেজা টুনু সুনামগন্জ প্রতিনিধিঃসুনামগন্জের তাহিরপুর উপজেলার উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়ন কৃষকলীগের ত্রি বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার দুপুরে তাহিরপুরের উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়ন ইউনিয়ন কৃষকলীগের আয়োজনে বাগলী বাজারে সম্মেলনের শুরুতেই কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দদের সাথে নিয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন ও শান্তির প্রতীক পাঁয়রা উড়িয়ে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ কৃষকলীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির যুগ্ম সাধারন সম্পাদক ও সুনামগঞ্জ-সিলেট সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য এড.শামীমা শাহরিয়ার । এ উপলক্ষে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশ কৃষকলীগ উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়ন ইউনিয়ন শাখার আহবায়ক শেখ মোস্তফার সভাপতিত্বে ও সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক তোফাজ্জুল শাহ’র সঞ্চালনায় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ কৃষকলীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সহসভাপতি দেওয়ান জয়নুল আবেদীন। প্রধান বক্তা সংগঠনের সাংগঠনিক সম্পাদক কৃষিবিদ মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান মোল্লা,কেন্দ্রীয় কার্য নির্বাহী কমিটির আইন বিষয়ক সম্পাদক মো. জহির উদ্দিন লিমন,সহ অর্থ বিষয়ক সম্পাদক মোহাম্মদ রেজাউল হক,তাহিরপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মো. আবুল হোসেন খান,সাধারন সম্পাদক অমল কান্তি কর,জামালগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান রাজু আফিন্দি, সুনামগঞ্জ জেলা কৃষকলীগের আহবায়ক আব্দুল কাদির শান্তি মিয়া, যুগ্ম আহবায়ক জুনায়েদ আহমদ,তাহিরপুর উপজেলা কৃষকলীগের আহবায়ক আলহাজ্ব জিল্লুর রহমান,সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক এম কে ওয়াহিদ চৌধুরী,জুলহাস মল্লিক, পরিতোষ দাস,বাবুল তালুকদার,রাসেল আহমদ,হুমায়ূন কবির,শামছুল আলম টিটু, উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়ন ইউনিয়ন কৃষকলীগের যুগ্ম আহবায়ক মো. সেলিম রেজা,সদস্য মজিবুর রহমান,মহি উদ্দিন মানিক প্রমুখ। প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ কৃষকলীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সহসভাপতি দেওয়ান জয়নুল আবেদীন বলেছেন,এই ইউনিয়ন কমিটিগুলোতে প্রকৃত মুক্তিযুদ্ধের চেতনার মানুষদের অর্ন্তভূক্ত করা হবে। তিনি আরো বলেন যারা স্বাধীনতা বিরোধী পাকিস্থানের এজেন্ট রয়েছেন তারা স্বাধীন বাংলার স্থপতি বঙ্গবন্ধুর ভাস্কার্য ভেঙ্গে ফেলার সাহস দেখায় তারা মূলত বাংলাদেশের স্বাধীনতা বিশ্বাস করে না। কাজেই এই কৃষকলীগ গঠনের মাধ্যমে প্রতিটি কৃষকলীগের নেতাকর্মীরা মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বুকে ধারন করে আমাদের নেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন কর্মকান্ডগুলো সাধারন মানুষের মাঝে তুলে ধরার আহবান জানান। সম্মেলনের উদ্বোধক সুনামগঞ্জ-সিলেট সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য এড.শামীমা শাহরিয়ার শুরুতেই হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পরিবারের নিহত সকল সদস্যসহ মুক্তিযুদ্ধে নিহত সকল শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে বলেন,দেশে কিছু ধর্ম ব্যবসায়ী উগ্র মৌলবাদি জামায়াত শিবিরের প্রেতাত্বারা ইসলামের দোহাই ও ফতুয়া দিয়ে সম্প্রতি কুষ্টিয়াতে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভেঙ্গে দিয়ে শুধু বঙ্গবন্ধুকে অবমাননা করেনি পুরো বাঙ্গালী জাতিকে অবমাননা করা হয়েছে। অথচ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের সকল আলেম ওলামা ও মোয়াজ্জিনসহ কওমী মাদ্রাসাগুলোকে সরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর মতো সরকারের সকল সুযোগ সুবিধার আওতায় আনতে স্বীকৃতি দিয়েছিলেন। স্বাধীনতা পরবর্তী বিএনপি জামায়াত ও জাতীয় পার্টি সরকারে ছিলেন। ঐ সরকারগুলো তো দেশের আলেম ওলামা মোয়াজ্জিন সহ কওমী মাদ্রাসাগুলোকে সরকারের সকল সুযোগ সুবিধায় আনতে পারেননি।কিন্তু শেখ হাসিনার সরকার এই সকল কাজগুলো করার পরও দেশের জনগন থেকে বিচ্ছিন্ন একটি রাজনৈতিক দল আন্দোলনে ব্যর্থ হয়ে তাদের এজেন্ডা বাস্তবায়নের জন্য কিছু আলেম ওলামাদের কে ইন্ধন দিয়ে কুষ্টিয়াতে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যকে রাতের আধারে ভেঙ্গে দিয়ে একটি অরাজক পরিস্থিতি করার চেষ্টা করছেন। কাজেই আমাদের মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের সকল মানুষজনকে আর ঘরে বসে না থেকে সময় এসেছে ঐ মৌলবাদিদের কে প্রতিহত করে আবারো ১৯৭১ সালের মতো আরেকটি মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে এই মৌলবাদিদেরকে পরাজিত করে বাংলার মাঠিতে তাদের কবর রচনার মাধ্যমে আরেকটি বিজয় অর্জন করতে হবে । তিনি উপস্থিত সকল নেতাকর্মীদের নাক কান খোলা রাখতে হবে এবং স্বাধীনতা বিরোধী অপশক্তির যেকোন অপতৎপরতা প্রতিহত করতে প্রস্তুত থাকার আহবান জানান।

Copyright © notunalonews24.com All rights reserved. | Newsphere by AF themes.