1. bnp786@gmail.com : editor :
  2. sylwebbd@gmail.com : mit :
  3. zia394@yahoo.com : Nurul Alam : Nurul Alam
  4. mrafiquealien@gmail.com : Rafique Ali : Rafique Ali
  5. sharuarprees@gmail.com : Sharuar : Mdg Sharuar
  6. cardgallary17@gmail.com : Shohidul Islam : Shohidul Islam
শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:৫০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
জয়তুন ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের সিলেট ৩টি উপজেলায় ১১০টি টিউবওয়েল স্থাপন সম্পূর্ণ করা হয়েছে রাজধানী ঢাকার গণসমাবেশকে কেন্দ্র করে বিএনপি কর্মীদের মামলা ও গণগ্রেফতার ব্যারিস্টার মোস্তাকিম রাজা চৌধুরীর সাথে সি‌লেট চট্টগ্রাম ফ্রেন্ড‌শীপ ফাউ‌ন্ডেশন এর ‌নেত্রবৃ‌ন্দের সৌজন্য সাক্ষাৎ কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের সভাপতি শ্রাবণ ও সাধারণ সম্পাদক জুয়েল এর উপর হামলার প্রতিবাদে জগন্নাথপুর উপজেলা ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন ইতালিস্হ বৃহত্তর নোয়াখালী সমিতি হবে ঐক্যবদ্ধ ও সুসংগঠিত সিলেটে কর্মরত সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় করলেন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এডভোকট নাসির উদ্দিন খান সি‌লেট চেম্বার (এস‌সি‌সিআই) ও এসএমই ফাউন্ডেশন উদ্যোগে উদ্যোক্তা সৃ‌ষ্টি কর্মশালা অনু‌ষ্ঠিত ক‌বি আবুল বশর আনসারীর মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া মাহফিল অনু‌ষ্ঠিত “স্বর্ণজয়ন্তীতে বাংলাদেশ” নামক স্মরণিকার প্রকাশনা উৎসব অনু‌ষ্ঠিত যুক্তরাজ‌্য, ক্রয়ডন শহ‌রের কাউন্সিলর ও সা‌বেক মেয়র হুমায়ুন ক‌বি‌রের সা‌থে মতবিনিময় সভা

কাঙ্ক্ষিত পদ না পাওয়া বেদনা,দেশ ছাড়ালেন ইশরাক।

  • আপডেটের সময় : শনিবার, ২১ আগস্ট, ২০২১

ডেস্ক রিপোর্ট::বিএনপির রাজনীতিতে তরুণ নেতাদের মধ্যে সবচেয়ে সক্রিয় বিগত ঢাকা সিটি করপোরেশনের নির্বাচনের মেয়র প্রার্থী সাাদেক হোসেন খোকার পুত্র ইশরাক হোসেন এখন অনেকটাই নিষ্ক্রিয়। মির্জা আব্বাস এবং প্রয়াত সাদেক হোসেন খোকার পুরনো দ্বন্দ্বের প্রভাবে এবার মহানগর কমিটিতে কাক্সিক্ষত পদ পাননি তিনি। এই অভিমানে বিএনপির এই নেতা যে কোনো সময় রাজনীতি থেকে নিজেকে গুটিয়ে নিতে পারেন বলে গুঞ্জন উঠেছে দলটিতে।

সূত্র জানায়, গত ২ আগস্ট ঢাকা মহানগর কমিটি ঘোষণার পরের দিনই নতুন কমিটিতে প্রত্যাশিত পদ না পেয়ে আমেরিকায় চলে যান ইশরাক হোসেন। সেখান থেকে লন্ডনে গিয়ে তারেক রহমানের সঙ্গে দেখা করবেন তিনি। নতুন কমিটিতে ‘কো-অপ্ট’ করে তাকে প্রত্যাশিত পদ দেয়ার ব্যাপারে বলবেন। তা না হলেও নতুন কমিটিতে অন্তত তাকে যাতে সাইনিং পাওয়ার দেয়া হয় সে বিষয়ে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের কাছে অনুরোধ জানাবেন তিনি। এ বিষয়ে পজেটিভ ফলাফল না পেলে স্বেচ্ছায় রাজনীতি ছাড়ার ঘোষণা দেবেন বলে ইশরাকের ঘনিষ্ঠ সূত্র নিশ্চিত করেছে।

বিএনপির প্রয়াত নেতা অবিভক্ত ঢাকার মেয়র সাদেক হোসেন খোকার বড় ছেলে প্রকৌশলী ইশরাক হোসেন দলটির আন্তর্জাতিকবিষয়ক কমিটির সদস্য। সর্বশেষ ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে নির্বাচনের পরেই তার দৃঢ় ও সাহসিকতার কারণে মাঠের রাজনীতিতে সবার নজরে আসেন। বিএনপির দলীয় কর্মসূচিতে তিনি পুলিশি ভয়ভীতি উপেক্ষা করে সবার আগে গিয়ে উপস্থিত হন। গত ১৩ ফেব্রুয়ারি জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে বিএনপির এক কর্মসূচিতে পুলিশের লাঠির মার খেয়েও নিজ দলের কর্মীকে জাপটে ধরে নিরাপদে নিয়ে যান ইশরাক। এ ছাড়াও করোনা শুরুর পর থেকেই নিজে নেতাকর্মীদের বাড়ি বাড়ি নিজে গিয়ে ত্রাণসামগী পৌঁছে দিয়ে আসেন। তার এসব কাজে খুশি হয়ে মাঠের নেতাকর্মীরা মহানগর কমিটিতে সদস্য সচিব হিসেবে তাকে দেখতে চান।

একটা সময় ইশরাক নিজেই ঢাকা মহানগর দক্ষিণের আহ্বায়ক বা সদস্য সচিব হওয়ার জন্য তারেক রহমানসহ নানা মাধ্যমে লবিং করতে থাকেন। কিন্তু বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস ইশরাককে সদস্য সচিব পদ না দিতে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের কাছে উল্টা তদবির করেন। মির্জা আব্বাসের সঙ্গে যুক্ত হন আরেক নেতা গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। তারেক রহমানকে তারা বোঝান- ইশরাক বেপরোয়া, সে দলের নির্দেশনা না মেনে নিজের মতো কাজ করে। মহানগরের বড় পদে তাকে আনা হলে আগামী আন্দোলন কর্মসূচিতে সিনিয়রদের নির্দেশনার গুরুত্ব থাকবে না। আব্বাস-গয়েশ্বরের কথার পরিপ্রেক্ষিতে তারেক রহমান ইশরাককে বোঝানোর চেষ্টা করেন কমিটির ১ নম্বর সদস্য পদ দেয়া হলেও তাকে ‘সাইনিং পাওয়ার’ দেয়া হবে। কিন্তু ইশরাক কমিটিতে দুধভাত নয়, সদস্য সচিব পদই চান-এমন কথায় অসন্তুষ্ট হন তারেক রহমান।

জানা যায়, ইশরাক হোসেনকে সদস্য সচিব পদ দিতে দলটির কয়েকজন সিনিয়র নেতাও তারেক রহমানকে অনুরোধ করে পাত্তা পাননি। শেষ পর্যন্ত কোনো চেষ্টাই কাজ না দেয়ায় ইশরাক নতুন কমিটির এক নম্বর সদস্য হিসেবে আহ্বায়ক ও সদস্য সচিবের সঙ্গে থানা-ওয়ার্ড কমিটি অনুমোদনের ক্ষমতা চান। সেটাও না পেয়ে ক্ষুব্ধ হন ইশরাক। মহানগরের বেশ কয়েকজন নেতা বলেন, ইশরাকের এ পরিণতির জন্য তার বাবার ঘনিষ্ঠ সিনিয়র নেতারাই দায়ী। শেষ পর্যন্ত ওই সিনিয়র নেতারা আরেকজন নেতার পক্ষে অবস্থান নেন।
সূত্র জানায়, সাদেক হোসেন খোকার সঙ্গে তার পুরনো দ্বন্দ্বের সেই বলয় আজও ভাঙতে পারেননি মির্জা আব্বাস। তিনি মনে করছেন, খোকাপুত্র ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সদস্য সচিবের দায়িত্ব পেলে তিনি কর্তৃত্ব হারাবেন। এছাড়া গত সিটি নির্বাচনের পরে তিনি ইশরাক হোসেনের ওপর বিরক্ত।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, নির্বাচনের আগে ইশরাক তার বাবা সাদেক হোসেন খোকার প্রধান প্রতিপক্ষ মির্জা আব্বাসের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক গড়ে ভোটের মাঠে নামেন। মির্জা আব্বাস ও তার স্ত্রী আফরোজা আব্বাসও ইশরাকের পক্ষে প্রচারে নামেন। কিন্তু ভোটের পর ঢাকা মহানগর কমিটি গঠনকে কেন্দ্র করে দলের কিছু সিনিয়র নেতার পরামর্শে ইশরাক ফের মির্জা আব্বাসের সঙ্গে দূরত্ব বজায় রেখে চলতে থাকেন, যা ভালোভাবে নেননি মির্জা আব্বাস।

মহনগরের নতুন কমিটির বিষয়ে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম অলমগীর বলেন, এই দুটি কমিটি দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশে গঠন করা হয়েছে। এরা সবাই পরীক্ষিত নেতা।
তিনি বলেন, আমাদের প্রত্যাশা হলো- অত্যন্ত সক্রিয়, সচল এবং কার্যকরী এই আহ্বায়ক কমিটি দ্রুত দলকে সুসংগঠিত করবে এবং একটি কাউন্সিলের মাধ্যমে নতুন কার্যকরী কমিটি গঠন করবে।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণের কমিটিতে ইশরাককে সদস্য সচিব পদ না দিয়ে তাকে বঞ্চিত করা হয়েছে কিনা জানতে চাইলে বিএনপির এক নেতা বলেন, ইশরাক সম্ভাবনাময় তরুণ নেতা। তাকে দেখলে মাঠের নেতারা উজ্জ্বীবিত হয়। বিএনপিতে ইশরাককে দরকার, তাকে ধরে রাখতে না পারলে সেটা বিএনপির দুর্ভাগ্য।

জানা গেছে, সদ্য ঘোষিত ঢাকা মহানগর বিএনপির উত্তর ও দক্ষিণের আহ্বায়ক কমিটি নিয়ে নেতাকর্মীদের মধ্যে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে। পদ হারানো কিংবা বহিষ্কার আতঙ্কে কেউ প্রকাশ্যে মুখ খুলছেন না। কারণ, কমিটি ঘোষণার আগে-পরে দলের শীর্ষপর্যায় থেকে মহানগরের প্রভাবশালী নেতাদের সতর্ক করে বলা হয়েছে, নতুন কমিটি নিয়ে কেউ বিরূপ মন্তব্য করলে তাকে সরাসরি দল থেকে বহিষ্কার করা হবে। তাই সরাসরি প্রকাশ করতে না পারলেও অনেকে দলের সিনিয়র নেতাদের কাছে নিজেদের ক্ষোভের কথা জানাচ্ছেন। দীর্ঘদিন মহানগর রাজনীতি করে পদ না পাওয়ার কারণ চাইছেন, কেউ কেউ কমিটি বাতিলের দাবি জানাচ্ছেন। অন্যথায় তারা স্বেচ্ছায় নিষ্ক্রিয় থাকবেন বলে জানান দিচ্ছেন।

এ প্রসঙ্গে দক্ষিণে বাদপড়া নেতা শেখ রবিউল আলম রবি বলেন, কিছু নেতা দলের হাইকমান্ডকে ভুল বার্তা দিয়ে বিভ্রান্ত করছেন। যে যুক্তিতে সক্রিয়দের বাদ দেয়া হয়েছে সেটা সংগঠনের জন্য ইতিবাচক নয়।

Comments are closed.

এই ধরণের আরো খবর

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস

সর্বমোট

আক্রান্ত
২,০৩৬,৭৩০
সুস্থ
১,৯৮৬,৩২০
মৃত্যু
২৯,৪৩৬
সূত্র: আইইডিসিআর

সর্বশেষ

আক্রান্ত
১৩
সুস্থ
৪০
মৃত্যু
স্পন্সর: একতা হোস্ট
© All rights reserved © 2021 notunalonews24.com
Design and developed By Syl Service BD